উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে! সিবিআই তদন্তের নির্দেশ

0
40

নিজস্ব সংবাদদাতা, ওয়েব ডেস্কঃ

ঝাড়খণ্ডের তৎকালীন বিজেপি পর্যবেক্ষক ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত, নোটবন্দির সময় এক ব্যক্তির কাছ থেকে ঘুষ নিয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেন দুই সাংবাদিক। তাঁদের দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে উত্তরাখন্ড হাইকোর্ট সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিল ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতের বিরুদ্ধে।

trivendra singh | newsfront.co
ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত

ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত বর্তমানে উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী। অভিযোগকারী দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলাগুলিও প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছে উত্তরাখণ্ড হাইকোর্ট। ফেসবুকে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় রাজ্য সরকার দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা করে। ২০১৬ সালে নোটবন্দির সময় এক ব্যক্তিকে ‘গো সেবা আয়োগের প্রধান করে দেওয়ার লোভ দেখিয়ে ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত তাঁর কাছ থেকে প্রচুর অর্থ ঘুষ নিয়েছিলেন। তবে, ওই অর্থ তিনি নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে রাখেননি, তাঁর একাধিক আত্মীয়দের অ্যাকাউন্টে হস্তান্তর করেছিলেন।

আরও পড়ুনঃ ফের করোনায় মৃত্যু হল আরও এক পুলিশ ইন্সপেক্টরের

একটি ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলে ধরেন সাংবাদিক উমেশ কুমার শর্মা। অভিযোগকারী সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে উত্তরাখন্ড পুলিশ। ওই এফআইআরকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন উমেশ কুমার। ওই আবেদনে তিনি ত্রিবেন্দ্র বিরুদ্ধে তদন্তের দাবিও জানান। সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতেই উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

আরও পড়ুনঃ আদালতের নিষেধাজ্ঞাকে উপেক্ষা! অঞ্জলি দেওয়ায় আইনি নোটিস সৃজিত-নুসরতদের

উত্তরাখণ্ড হাইকোর্টের এই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে দ্বারস্থ হচ্ছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াতের মিডিয়া কোর্ডিনেটর, দর্শন সিং রাওয়াত হাইকোর্টের রায়কে সম্মান জানিয়েছেন তবে একই সঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার কথাও জানিয়েছেন।

এই ঘটনায় অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি। দলের রাজ্যসভাপতি বংশীধর ভগৎ বলেছেন, কি ঘটেছে তিনি জানেন না। আদালতের নির্দেশ মেনেই তদন্ত এগোবে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485