জটেশ্বরের রাজনীতিতে ‘জল’

0
56

নিজস্ব সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ারঃ

পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন গ্রামে পানীয় জলের জলের অভাব মেটাতে এগিয়ে আসে রাজ্য সরকার। সম্প্রতি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর “জলস্বপ্ন” প্রকল্পের মাধ্যমে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে গ্রাম বাংলার দুই কোটি মানুষের ঘরে পরিশ্রুত পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়।

Jalsapno | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

সেই ‘জলস্বপ্ন’ প্রকল্পের কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে আলিপুরদুয়ার জেলার ফালাকাটা ব্লকের জটেশ্বর ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের জটেশ্বর ও ডালিমপুর এলাকায়। তবে এই ‘জলস্বপ্ন’ প্রকল্প কাজের সাফল্য নিজের দিকে টানতে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক টানাপোড়ন।

BJP Leader | newsfront.co
অঘোর নাথ রায়, বিজেপি নেতা। নিজস্ব চিত্র

বিজেপির ১৩ নং মন্ডল সভাপতি অঘোর নাথ রায় বলেন, “এটা কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্প, প্রত্যেক বাড়িতে জল ও বিদুৎ আগামী ২০২৪ সালের মধ্যে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্য মাত্রা নিয়ে প্রতিটি রাজ্যে টাকা দেওয়া হয়। সেই প্রকল্প রাজ্য সরকার নিজের নামে চালানোর চেষ্টা করছেন।”

আরও পড়ুনঃ মেদিনীপুরে মহিলা মোর্চার স্কুটি মিছিল

Samaresh Pal | newsfront.co
সমরেশ পাল, তৃণমূল নেতা। নিজস্ব চিত্র

এই বাড়ি বাড়ি পরিশ্রুত পানীয় জল নিয়ে স্বজন পোষণের অভিযোগও তুলেছেন তিনি। এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের নেতা তথা জটেশ্বর ২ নং অঞ্চলের প্রধান সমরেশ পাল বলেন, “রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী জলস্বপ্ন প্রকল্পের মাধ্যমে গ্রামীণ এলাকার মানুষের বাড়ি বাড়ি পানীয় জল পৌঁছে দিচ্ছেন, এটাকে বিজেপি কোথায় ধন্যবাদ জানাবেন, তা না করে অপপ্রচার চালাচ্ছেন। এর জবাব মানুষ দেবেন। মানুষকে পরিষেবা দেওয়া আমাদের কর্তব্য, আমরা তাই করছি। এখানে স্বজন পোষণের কোনো অবকাশই নেই।”

আরও পড়ুনঃ মঞ্চে অমিত শাহকে কালো পতাকা, গো-ব্যাক স্লোগান মহিলার

Jateswar people | newsfront.co
সরস্বতী বর্মন, স্থানীয় বাসিন্দা। নিজস্ব চিত্র

জানা গিয়েছে, এই প্রকল্পের আওতায় প্রথম পর্যায়ে প্রায় দুই হাজার বাড়ি নলবাহিত পরিস্রুত পানীয় জল সরবরাহ করা হচ্ছে। প্রতিদিন সকাল দুপুর বিকেল এই তিন বেলা জল সরবরাহ করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। তবে রাজনৈতিক তরজা যাই থাকুক এলাকাবাসী যে এই পরিষেবা পেয়ে ভীষণ খুশি তা পরিষ্কার স্থানীয় বাসিন্দা সরস্বতী বর্মনের কথায়।

Jal Swapno prakalpa | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

তিনি বলেন, “আগে খাবারের জন্য পানীয় জল অনেক দূর থেকে আনতে হত এখন আর দূরে যেতে হয় না। আমাদের সময় ও পরিশ্রম অনেকটাই কম হয়।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here