কাশ্মীরে গ্রেফতার সাংবাদিক, অপরাধ অজ্ঞাত, মুখে কুলুপ প্রশাসনের

0
32

ওয়েবডেস্ক, নিউজফ্রন্টঃ

জম্মু ও কাশ্মীরে গ্রেফতার করা হল সাংবাদিক ইরফান মালিককে। মাঝরাতে বসতবাড়িতে হানা দিয়ে তাঁকে থানায় নিয়ে যায় পুলিশবাহিনী। পরিবার জানতে চাইলেও কী কারণে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তা খোলসা করেনি পুলিশ ও প্রশাসন।

বুধবার মাঝরাতে দক্ষিণ কাশ্মীরের ত্রাল জেলায় ইরফানের বাড়িতে হানা দেয় পুলিশ। তাঁকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়া হয় পুলওয়ামার ত্রাল থানায়।

Irfan malik | newsfront.co
ধৃত ইরফান মালিক।ফাইল চিত্র

বৃহস্পতিবার সকালে সখানে গিয়ে সাংবাদিকের সঙ্গে দেখা করেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু অনেক বার প্রশ্ন করেও কী কারণে ওই সাংবাদিককে গ্রেফতার করা হয়েছে, তা জানাতে পারেনি পুলিশ।

ইরফান মালিক (২৬) স্থানীয় জনপ্রিয় সংবাদপত্র ‘গ্রেটার কাশ্মীর’ -এর প্রতিবেদক।

তিনি ওই সংবাদপত্রের জন্য পুলওয়ামা জেলার খবর সংগ্রহের দায়িত্বে রয়েছেন। তিনি নিজেও জানেন না, কোন অপরাধের জন্য তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরিবারের তরফে তাঁকে মুক্তি দেওয়ার জন্য আবেদন জানালেও ফল হয়নি।

কড়া নিরাপত্তার বেষ্টনীতে ঘেরা জম্মু ও কাশ্মীরে বর্তমানে কার্ফু পরিস্থিতি বহাল রয়েছে। এই কারণে সংবাদমাধ্যমকে ইরফানের গ্রেফতারির খবর দিতে শ্রীনগরে যেতে হয় তাঁর পরিবারের সদস্যদের।

কিন্তু স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গ্রেটার কাশ্মীর পত্রিকা দফতর বন্ধ থাকায় বাধ্য হয়ে জম্মু ও কাশ্মীর প্রশাসনের তথ্য মন্ত্রকের অধীনস্থ মিডিয়া ফেলিসিটেশন সেন্টারে তাঁদের যেতে হয়। সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে ইরফানের গ্রেফতার হওয়ার খবর জানান তাঁর পরিবার।

পরিবারের দাবি, অবন্তিপুরায় পুলিশ সুপার তাহির সালিমের সঙ্গে এদিন সকালে দেখা করে বিষয়টি জানানো হয়। সুপারও অবশ্য ইরফানের গ্রেফতারির কারণ দর্শাতে ব্যর্থ হয়েছেন। এমনকি গ্রেফতারির খবর জানেন না বলেও তিনি দাবি করেছেন।

এদিন সন্ধেবেলা জম্মু ও কাশ্মীর সরকারের মুখপাত্র রোহিত কৌশল জানিয়েছেন, বিকেলে তাঁরা সাংবাদিক গ্রেফতারের খবর পেয়েছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখার তিনি আশ্বাস দিয়েছেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485