প্যাট কামিন্স এর সামনে উড়ে গেল মুম্বাই ইন্ডিয়ান

0
41

কবীর হোসেইন, স্পোর্টস ডেস্কঃ

উফ: সত্যিই অসাধারণ! ৬ ৪ ৬ ৪ ৬ ৪ ৬ ৬ ২ ৪ ৬ এটা কোন ফোন নম্বর নয় , এটা প্যাট কামিন্স  স্কোরিং শর্ট এর বিবরণ। আইপিএলে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে অসাধারণ দক্ষতায় ম্যাচ জিতলেন প্যাট কামিন্স। প্যাট কামিন্স ও ভেঙ্কটেশ আইযারের ব্যাটের উপর ভর করে  মাত্র ১৬ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। কলকাতা নাইটরা ৫ উইকেটে হারিয়ে দেয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। বুধবার পুনের ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় কলকাতা নাইট রাইডার্স এর অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ার শুরুতেই চাপে পড়ে যায় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ব্যাটাররা। মাত্র ১১ ওভারে  ৫৫ রানে ৩ উইকেট হারায় ।এমত অবস্থায় সূর্য কুমার যাদব (৫৩)ও তিলক যাদব(৫১) দুর্দান্ত ৪৯ বলে ৮৩ রানে পার্টনারশিপে এবং ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার কায়রন পোলার্ড এর  মূল্যবান ৫ বলে ২২ রানের সাহায্য করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান নির্ধারিত কুড়ি ওভারে  ৪ উইকেটে ১৬১ রান করেন । উমেশ যাদব, বরুণ চক্রবর্তী  একটি করে ও প্যাট কামিন্স দুটি উইকেট নেন।

kkr won
প্যাট কামিন্স, ছবিঃ টুইটার

জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম থেকে চাপে পড়ে যায় কলকাতা নাইট রাইডার্স মাত্র ৩৫ রানে অধিনায়ক সুরেশ আইয়ার ও অজিঙ্কা রাহানে  কে হারায় । স্যাম বিলিংস ও ভেঙ্কটেশ আইয়ার কলকাতা ইনিংসকে টেনে নিয়ে যায়। কিন্তু এই পার্টনারশিপ  স্থায়ী হয়নি স্যাম বিলিংস (১৭)ভুল শট খেলে ফিরে যান নিতিশ রানা (৮)ও একই পথের পথিক আন্দ্রে রাসেল(১১) একটা ওভার বউন্ডারী ও একটি বউন্ডারী মেরে দলের রান রেট   বাড়িয়ের দেন কিন্ত  ৫ উইকেট হারিয়ে কলকাতা নাইট রাইডার্স চাপে পড়ে যায়। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বোলাররা আরো চেপে বসে কলকাতার উপর।

আরও পড়ুনঃ ইউ যোগা এডাডেমির উদ্যোগে দু-দিনের রাজ্যস্তরীয় যোগাসন প্রতিযোগিতা

এমত অবস্থায় ব্যাট করতে নামেন অসি অধিনায়ক প্যাট কামিন্স  সমস্ত অংক ওলট পালট করে দেন মাত্র ১৪ বলে অর্ধশত রান পূর্ণ করেন শেষ পর্যন্ত প্যাট কামিন্স ১৫বলে ৫৬ রানে অপরাজিত থাকেন ।তিনি এর সাহায্যে আইপিএলে তার দ্বিতীয় অর্ধশত রান পূর্ণ করেন । এই ইনিংস আইপিএল ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম অর্ধশতরান এর আগে কে এল রাহুল ১৪ বলে ৫০ রান করেন ।এছাড়া ম্যাচের ১৬তম ওভারে ড্যানিয়েল সাম্স  এক ওভারে ৩৫ রান নেন  প্যাট কামিন্স যা আইপিএল ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের স্কোর। ১৬তম ওভারে  চারটে ছয় দুটি চার একটা দুটো একটা নো বলের সাহায্যে আইপিএলের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ওভার হিসেবে স্বীকৃত হয় ড্যানিয়েল সাম্স ওভার। মুরুগান অশ্বিন দুটি ও ও টয়মল মিলস দুটি উইকেট নেন। ম্যাচের সেরা প্যাট কামিন্স।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here