খাব কী? ফের পরিযায়ী হচ্ছেন উত্তরপ্রদেশের শ্রমিকরা

0
31

নিজস্ব সংবাদদাতা, ওয়েব ডেস্কঃ

করোনা ভাইরাসের প্রকোপে ত্রস্ত গোটা পৃথিবী। ভারতেও থাবা বসিয়েছে কোভিড-১৯। দ্রুত ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। আক্রান্তের সংখ্যাও ক্রমশ বাড়ছে। করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। যার কারণে বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়েছিলেন পরিযায়ী শ্রমিকরা।

workers | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

পয়লা মে থেকে ভিন রাজ্যে আটকে থাকা শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে ‘শ্রমিক স্পেশ্যাল’ ট্রেন চালু করেছে কেন্দ্র। ইতিমধ্যে সেই ট্রেনে নিজের বাড়ি ফিরেছেন বহু পরিযায়ী শ্রমিক।

উত্তরপ্রদেশেও ঘরে ফিরেছেন প্রায় ৩০ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক। তাঁদের মধ্যে অধিকাংশই ফের কাজে ফিরছেন। তাঁদের মতে খিদের জ্বালায় মরার চেয়ে ভাইরাস সংক্রমণ ভালো। দেওরিয়া থেকে গোরক্ষপুরের বাসে ওঠার আগে এমনটাই সংবাদমাধ্যমকে জানান ওই পরিযায়ী শ্রমিকরা।

আরও পড়ুনঃ এবার দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাদের শো-কজের পথে হাঁটল তৃণমূল

গোরক্ষপুর থেকে বিশেষ ট্রেন ছাড়ছে মহারাষ্ট্র ও গুজরাতের উদ্দেশ্যে। সেই ট্রেনে সওয়ার হতেই এই বাসযাত্রা। শনিবার সংবাদমাধ্যমকে বললেন দিবাকর প্রসাদ এবং খোরশেদ আনসারি। কলকাতার এক সংস্থায় টেকনিশিয়ানের কাজ করা দিবাকর প্রসাদ সেই হোলির সময় গ্রামে ফিরেছিলেন।

কিন্তু এরপর করোনা সংক্রমণ-বৃদ্ধি ও লকডাউনের কারণে আর কলকাতায় ফিরতে পারেননি। তবে, আনলক পর্বে তাঁর সংস্থার শাটার উঠেছে।

তাই দিবাকর প্রসাদ বলেন, “আমি ভীত কিন্তু তার চেয়ে বেশি ভীত গ্রামে থাকতে। নিজে কী খাব? পরিবারকে কী খাওয়াবো? খিদের জ্বালা সহ্য করা কঠিন। না খেতে পেয়ে মরার চেয়ে করোনা ভালো।” স্ত্রী-সন্তান-সহ তাঁর পরিবারের সদস্য সংখ্যা সাত।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485