জুলাইয়েও হয়তো বাংলার স্কুল খুলবে না, নবান্নে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

0
41

শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতাঃ

৩০ জুনের পর ফের স্কুল খোলার আশা করেছিলেন পড়ুয়ারা। কিন্তু বুধবার বিকেলে নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে স্কুল নিয়েও আশঙ্কা প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, উর্ধ্বগামী সংক্রমণের কারণে জুলাই মাস থেকে ফের স্কুলে পঠনপাঠন হয়তো শুরু হবে না।

mamata banerjee | newsfront.co
ফাইল চিত্র

তিনি বলেন, “মনে হচ্ছে জুলাই মাসেও স্কুল খুলবে না।” তবে উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলো সেরে ফেলা হবে বলেই জানান তিনি। একই সঙ্গে এদিন মুখ্যমন্ত্রী বেসরকারি স্কুলগুলির উদ্দেশে বেতন না বাড়ানোর কথাও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, “প্রাইভেট স্কুলগুলোর কাছে আমার অনুরোধ, এখন দয়া করে ফিজ বাড়াবেন না।”

ইতিমধ্যেই ৩০ জুন পর্যন্ত রাজ্যের সমস্ত স্কুল বন্ধ থাকার ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। একই সঙ্গে রাজ্যের সাধারণ মানুষকেও মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, করোনা টেস্টের সংখ্যা বাড়ছে বলেই সংক্রমণের সংখ্যা বেশি আসছে। আতঙ্কিত হবেন না। তার ওপরে এই ঘোষণা চিন্তায় ফেলল রাজ্যের বিপুল সংখ্যক অভিভাবকদের।

আরও পড়ুনঃ ভিড় এড়াতে সরকারি অফিসে দুই শিফটে কাজের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

অন্যদিকে, অনৈতিক ভাবে ফি আদায়ের অভিযোগ তুলে তার প্রতিবাদে এদিনই বারাসতের ইন্দিরা গান্ধী মেমোরিয়াল স্কুলের সামনে যশোর রোড, ৩৪ ও ৪৫ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকরা।

সকাল সাড়ে এগারোটা থেকে সাড়ে বারোটা পর্যন্ত রাস্তা অবরোধের ফলে ব্যাপক যানজট হয় জাতীয় সড়ক জুড়ে। চরম ভোগান্তিতে পড়েন নিত্যযাত্রীরা। এছাড়া গত কয়েকদিনে বেশ কয়েকটি স্কুলে এই একই দাবিতে অভিভাবকদের বিক্ষোভ দেখানোর বিষয়টি সামনে আসে।

এর পরেই বুধবার বিকেলের সাংবাদিক বৈঠকে আরও একবার ফি না বাড়ানোর কথা মনে করিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাধ্যমিক থেকে উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষা নিয়ে নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, মাধ্যমিকের মিউজিকের প্র্যাক্টিক্যাল পরীক্ষা বাকি রয়েছে যা ২০ জুন নেওয়ার কথা। এছাড়া উচ্চমাধ্যমিকের বেশ কিছু বাকি পরীক্ষা ২, ৬, ৮ জুলাই নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ করোনা এক্সপ্রেস বলিনি, ভুল ব্যাখ্যা হয়েছে দাবী মুখ্যমন্ত্রীর

প্রসঙ্গত, করোনা সতর্কতায় মার্চের মাঝামাঝি সময় থেকেই স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে পঠনপাঠন বন্ধ হয়ে যায় রাজ্যে। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার পঞ্চম দফার লকডাউন ঘোষণা করার পর গাইডলাইন দিয়ে স্পষ্ট বলে দেয়, ৩০ জুন পর্যন্ত স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, মাদ্রাসা খুলবে না। সেই পথ অনুসরণ করেছিল রাজ্য সরকার। এবার উর্ধ্বগামী করোনা সংক্রমণকে মাথায় সম্ভাব্য বিষয়টিকেও বলে রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here