রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের সাংসদ পদ খারিজ হবে না কেন? দিলিপের মন্তব্যে উঠছে প্রশ্ন!

0
839

ওয়েবডেস্কঃ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের সাংসদ পদ খারিজ হবে না কেন? উঠছে প্রশ্ন!

ছবি সৌজন্যে: https://twitter.com/SeeteshPande/status/589126407738953730?s=19

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ২০১৯ রাজ্যসভায় পাশ হওয়ার পরেই রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের করা এক টুইটকে ঘিরেই উঠছে এই প্রশ্ন। তিনি বৃহস্পতিবার টুইটে লিখেছিলেন, “আমি খান টাইগারের বেগম হয়ে যাচ্ছিলাম, আমাকে অপহরণ করতে এসেছিল, সেই রাতে যদি আমার মা এবং আমি বোরখা পরে দিনাজপুর থেকে পালাতে না পারতাম।” এই টুইটের পর এই প্রশ্নটা উঠছে রূপা গাঙ্গুলী কি তাহলে শরণার্থী? তাঁকে কি নতুন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন অনুযায়ী আবেদন করতে হবে? আর তাই যদি হয়, তাহলে তাঁর সাংসদ পদ খারিজ হবে না কেন?

এই প্রশ্নের উত্তরে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানান যে রুপা শরণার্থী হয়ে থাকলে নাগরিকত্বের আবেদন করবেন এবং পেয়েও যাবেন। তিনি এখানেই থেমে থাকেননি। তিনি আরো মন্তব্য করেন যে বাংলা, আসাম সহ অনেক রাজ্যের জনপ্রতিনিধিই শরণার্থী।
দিলীপ বাবুর এই মন্তব্য থেকে উঠে আসছে বেশ কিছু প্রশ্ন । তাহলে এই অ-নাগরিক সাংসদদের নিয়ে গঠিত সরকার কিভাবে বৈধ হয়? রূপা গঙ্গোপাধ্যায় পাধ্যায়ের মত যত মানুষ নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে এসেছেন তাদের কাছে ইতিমধ্যেই এই দেশের ভোটার কার্ড, আধার কার্ড, প্যান কার্ড,লাইসেন্স ও পাসপোর্ট সহ নানান বৈধ নথি আছে। সেই সমস্ত বৈধ নথিপত্র দেখিয়ে অনেকেই এই দেশের স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে চাকরি পর্যন্ত করছেন। তাহলে সে ক্ষেত্রে কি ওই সমস্ত নথি গ্রাহ্য হবে না? প্রশ্ন অনেক! উত্তরের অপেক্ষায় এখন সাধারণ মানুষ।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485