‘নিউজ নেশন’ সম্প্রচারিত ধর্মীয় বিদ্বেষমূলক অনুষ্ঠানের বিরুদ্ধে কড়া নির্দেশ NBDSA-এর

0
46

শুভশ্রী মৈত্র, ওয়েব ডেস্কঃ

সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে সঞ্চালক যদি নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গী বজায় রাখতে না পারেন সেক্ষেত্রে ব্যবস্থা নিতে হবে সম্প্রচারক সংস্থাকে, জানিয়ে দিল ‘নিউজ ব্রডকাস্টিং আন্ড ডিজিটাল ষ্ট্যাণ্ডার্ড অথরিটি’।

Deepak Chaurasia
ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোয় অভিযুক্ত ‘নিউজ নেশন’ চ্যানেলের সঞ্চালক দীপক চৌরাসিয়া, ছবিঃ টুইটার

‘নিউজ নেশন’ নামের একটি চ্যানেলে গত ৬ নভেম্বর ২০২০ তে একটি বিতর্ক অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হয় যার শীর্ষক ছিল ‘কনভার্সন জিহাদ’। এই অনুষ্ঠান নিয়ে ‘সিটিজেনস ফর জাস্টিস এন্ড পিস’ নামে এক এনজিও অভিযোগ জানায় NBDSA-এর কাছে। ইতিমধ্যেই অনুষ্ঠানের ভিডিও নিউজ নেশনের যাবতীয় প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

NBDSA গতকাল তাদের পর্যবেক্ষণে জানায়, এই ধরণের অভিযোগের ক্ষেত্রে কিছু দায়িত্ব সম্প্রচারক সংস্থা অর্থাৎ নিউজ চ্যানেলের উপরেও বর্তায়। প্রয়োজনে সঞ্চালকের বিরুদ্ধে প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে সংস্থাকে। এবং নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গির সঙ্গে কিভাবে সংবাদ সঞ্চালন করতে হয় তা নিয়ে যথাযোগ্য ট্রেনিং দিতে হবে তাঁদের। তবে নিউজ নেশন কর্তৃপক্ষের তরফে ইতিমধ্যেই NBDSA-এর কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করা হয়েছে। তবে ভবিষ্যতে যে আর এমন ঘটনা ঘটবে না এবং এই অনুষ্ঠানের ভিডিও তাঁদের প্রতিটি প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এই মর্মে নিউজ নেশন কর্তৃপক্ষ ৭ দিনের মধ্যে লিখিত ভাবে সুনিশ্চিত করবেন NBDSA-কে সেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ আইনি রক্ষাকবচ পেয়ে মুম্বাই স্পেশাল ক্রাইম ব্রাঞ্চের দপ্তরে প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিং

উল্লেখ্য, ‘কনভার্সন জিহাদ’ শীর্ষক বিতর্ক অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন দীপক চৌরাসিয়া, তাঁর বিরুদ্ধে এর আগেও একাধিক অভিযোগ উঠেছে ধর্মীয় বিদ্বেষমুলক কথাবার্তা অনুষ্ঠানের মধ্যে বলার। NBDSA-এর চেয়ারপার্সন প্রাক্তন বিচারপতি একে সিক্রি এদিন বলেন, দীপক চৌরাসিয়া ঐদিনের বিতর্ক সঞ্চালনা করতে গিয়ে এমন বেশ কিছু কথা বলেছেন যা ধর্মীয় বিদ্বেষমুলক এবং সম্প্রচারের কোড অফ এথিক্সের ৯ ধারা লঙ্ঘন করেছে।

আরও পড়ুনঃ সলমন খুরশিদের ‘সানরাইজ ওভার অযোধ্যা’ বইটি নিষিদ্ধ করার মামলা খারিজ করল দিল্লি হাইকোর্ট

সর্বোপরি ঐ অনুষ্ঠানে মৌলানা সায়িদ উল কাদরি নামক এক ব্যক্তিকে ক্যামেরার সামনে সমগ্র ইসলাম ধর্মের মানুষদের হয়ে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করেন এবং তাঁকে ‘ঝুট কি ফ্যাক্টরি’ অর্থাৎ মিথ্যার কারখানা বলে সম্বোধন করেন যা চূড়ান্ত অপমানজনক।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here