অন্তরঙ্গ মূহুর্তের ছবি দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল নার্সিং পড়ুয়াকে, হুমকি

0
151

সিমা পুরকাইত, দক্ষিণ ২৪ পরগণাঃ

বিবাহের প্রস্তাব দিয়ে সহবাস করা হয় এক নার্সিং ট্রেনিংয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীকে । পরে সহবাসের বেশ কিছু ছবি নিয়ে ব্ল্যাকমেলের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে । আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হলে শাসক দলের সদস্যার ছেলে হওয়ায় কিছু করা যাবেনা বলে জানানো হয় । ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুর থানার দৌলতাবাদে।

girl | newsfront.co
অভিযোগকারী ছাত্রী ৷ নিজস্ব চিত্র

নির্যাতিতা ছাত্রী ও তার পরিবারের লোকজনেদের অভিযোগ যে,বাল্যবন্ধু সৌমদ্বীপ খাঁর বন্ধু তুহিন কুমার আদকের সাথে ওই ছাত্রীর আলাপ ২০১৬ সালে ৷ তুহিন কুমার আদক ছাত্রীটিকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় ২০১৭ সালে। ছাত্রীর সম্মতিতে সম্পর্ক এগোয়৷ ২০১৮ সালে ছাত্রীটিকে তুহিন কোননগরে তার মামার বাড়িতে নিয়ে যায় এবং বিবাহের প্রস্তাব দেয় । পরে অন্তরঙ্গ মূহুর্তের কিছু ছবি মোবাইলে তুলে রাখে ৷ মেয়েটি ছবি তোলার কারণ জানতে চাইলে তুহিন জানায় পরে ডিলিট করে দেবে ।

আরও পড়ুনঃ বালুরঘাটে বিএসএফ জওয়ানের অস্বাভাবিক মৃত্যু,চাঞ্চল্য

তুহিন উচ্চমাধ্যমিক পাস করার পর তুহিন বিএসসি অফ টেকনোলজি নিয়ে সঞ্জবনী হসপাতালে হাওড়ার ফুলেরশ্বরে ভর্তি হয়। মেয়েটি বেহালার উওম্যান কলেজে ভর্তি হয়। তুহিন মেয়েটিকে প্রস্তাবদেয় যে নার্সিং নিয়ে পড়াশোনার জন্য এবং আর ও জানায় ৫ লক্ষ টাকা লাগবে পুরো কোর্স সম্পন্ন করতে ৷ প্রথমে ২৫ হাজার টাকা নিয়ে ভর্তি করানোর জন্য টাকা নেয় তুহিন ৷ মেয়েটির বাবা মা প্রথমে ২৫ হাজার টাকা দিলেও পরে খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারে যে তুহিন টাকা জমা দেয়নি ।

মেয়েটি জিজ্ঞাসা করায় তুহিন জানায় তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করলে টাকা ফেরত দিয়ে দেবে। কিন্তু মেয়েটি রাজি না হওয়ায় মেয়েটিকে খুনের হুমকি দিতে থাকে। পাশাপাশি অ্যাসিডদগ্ধ করে দেবে বলে হুমকি দেয় । তুহিনকে মেয়েটি আইনি পদক্ষেপ নেবে বলে জানায়। তুহিন জানায় তার মা উপপ্রধান, পুলিশ কিছু করবে না বরং ২/১দিনের ভিতরে জামিন হয়ে যাবে। এছাড়াও দীর্ঘ লকডাউন সময়ে মেয়েটিকে উত্যক্ত করতে থাকে।

আরও পড়ুনঃ জলঙ্গীতে বিপুল পরিমাণ হেরোইন উদ্ধার

অবশেষে মেয়েটি তার বাবা মা কে সমস্ত বিষয় জানান এবং মেয়েটির বাবা মা থানায় আসে । পুলিশ কোন কথাই শোনেননি। । পরে আবার স্থানীয় নেতৃত্ব দের সহায়তায় ১৩ তারিখে বিষ্ণুপুর থানায় সমস্ত বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন । পুলিশ সূত্রে খবর যে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে তুহিন কুমার আদকে গ্রেফতার করে পুলিশ ।

আলিপুর আদালতে তোলা হলে মহামান্য আদালত ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয় ।জানাগেছে তুহিন কুমার আদকের বাড়ি বিষ্ণুপুর থানার গোতলা সুলতান গঞ্জে ৷ তার মা পঞ্চানন গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য কিন্তু ছেলেটি জানায় উপপ্রধান । তুহিনের বাবার নাম রঞ্জিত আদক ।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here