রামপুরহাটে বিজেপির আদি – নব্য দুই গোষ্ঠীর লড়াইয়ে ভেস্তে গেল দলের সাংগঠনিক বৈঠক

0
70

পিয়ালী দাস, বীরভূমঃ

দলীয় কর্মসূচিতে পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলার রামপুরহাট মহকুমায় প্রচারে এসেছেন মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র। তার সামনেই হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ল বিজেপির দুই গোষ্ঠী। আদি ও নব্য এই দুই গোষ্ঠীর লড়াইয়ে ভেস্তে গেল বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠক।নরোত্তম মিশ্র বাধ্য হয়ে মাঝপথে বৈঠক ছেড়ে চলে যান।

conflict | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

আদি বিজেপি নেতাদের দাবি সভাপতি শ্যামাপদ মন্ডল প্রকৃত বিজেপি নেতাকর্মীদের বসিয়ে দিয়েছেন। উল্টে দলে গুরুত্ব বাড়ছে তৃণমূল এবং সিপিএম থেকে আসা দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাদের। লোকসভা নির্বাচনে আদি বিজেপি নেতাকর্মীরা পরিশ্রম করে যেভাবে দলীয় সংগঠন গড়ে তুলেছে তা ক্ষতি করে দিচ্ছে অন্য রাজনৈতিক দল থেকে আসা নব্য বিজেপি নেতারা।

আরও পড়ুনঃ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বদের উপর হামলার প্রতিবাদে বহরমপুরে পথ অবরোধ দলীয় কর্মীদের

আদি বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন বিজেপির কনভেনার কালীদাস পাল বিস্ফোরক দাবি করে জানিয়েছেন, বীরভূমের দুহাজার কার্যকর্তা এবং কুড়ি হাজার বিজেপি কর্মী কে কাজ করতে দিচ্ছেন না বিজেপির জেলা সভাপতি। ইতিমধ্যে সমস্যার কথা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ উদাসীন প্রশাসন, ফালাকাটায় ফুটপাত দখল মুক্ত করতে পথে ব্যবসায়ী সমিতি

কিন্তু রাজ্য নেতারা কোনো কথা কানে তুলছেন না। গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের বিষয়টি মেনে নিয়ে বীরভূম জেলা বিজেপির সভাপতি শ্যামাপদ মন্ডল জানিয়েছেন, দলের একনিষ্ঠ কর্মীরা কখনও দলকে বিপদে ফেলে দলের সমস্যার কথা জনসমক্ষে আনবে না।

বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মন্ডল জানিয়েছেন, যারা নিজের দলের সমস্যা মেটাতে পারেনা তারা বাংলায় ক্ষমতায় আসার অলীক স্বপ্ন দেখেন। হিন্দি ভাষী নেতাদের বাংলায় কোনোদিন মানুষ মেনে নেবে না।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here