কাল শহরে মোদি, নিরাপত্তার কারণে তিন পথে যাত্রার ব্যবস্থা প্রধানমন্ত্রীর

0
67

নিউজফ্রন্ট, ওয়েবডেস্কঃ

দেশজুড়ে চলা বিক্ষোভকালীন পরিস্থিতিতে কাল বিকেলে কলকাতায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গোপন সূত্রে পাওয়া খবর, কড়া নিরাপত্তার চাদরে মোড়া হয়েছে শহর কলকাতা।

Narendra Modi | newsfront.co
কড়া নিরাপত্তায় এসপিজি রক্ষীদের তত্ত্বাবধানে। চিত্র সৌজন্যঃ কোরা

শুধু স্থলপথেই নয়, জলপথ এবং আকাশপথেও প্রধানমন্ত্রীর যাত্রাপথ সুগম করা হয়েছে। শহরে বেশ কিছুদিন আগেই এসে পৌঁছেছে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সুরক্ষার দায়িত্বে থাকা স্পেশাল প্রটেকশন গ্রুপ (এসপিজি)। প্রধানমন্ত্রীর জন্য বিপদমুক্ত ‘রুট’ ঠিক করতে কলকাতা পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক সেরেছেন তাঁরা।

মেন রাস্তা দিয়ে গেলে প্রধানমন্ত্রীকে বিক্ষোভের মুখে পড়তে হতে পারে, বিক্ষোভকারীরা কালো পতাকা দেখিয়ে ঘেরাও করতেই পারে। তাই যাত্রাপথের মধ্যে নদীপথের কথা ভাবা হয়েছে। শুক্রবার সকাল থেকেই মিলেনিয়াম পার্ক এবং বেলুড় মঠের মধ্যে গঙ্গাবক্ষে চলছে নজরদারি। কলকাতা পুলিশের অফিসারেরা ‘জেড স্কি’ নিয়ে টহল দিচ্ছেন।

আরও পড়ুনঃ দেশপ্রেমী দীপিকার দেশদ্রোহী তকমাই জেএনইউয়ের আক্রমণকারীদের চিহ্নিত করছে, দাবি কানহাইয়ার

সূত্রের খবর, মিলেনিয়াম পার্কের অনুষ্ঠানের পর বেলুড় মঠে নদীপথে গেলে, ফেরি চলাচল নিয়ন্ত্রিত করা হবে। তবে সব কিছুই নির্ভর করছে আবহাওয়ার উপরে।

আসুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক প্রধানমন্ত্রীর সম্ভাব্য যাত্রাপথ ও কার্যক্রমঃ

▪ বিমানবন্দরে পৌঁছে ভিআইপি রোড হয়ে মা উড়ালপুর দিয়ে বিবাদীবাগে আসতে পারেন মোদি।

▪অথবা বিমানবন্দর থেকে রেসকোর্সে হেলিকপ্টারে চেপেও আসার সম্ভাবনা রয়েছে ।

▪ বিকেল সাড়ে ৫টা নাগাদ বিবাদীবাগ চত্বরে কারেন্সি বিল্ডিংয়ে পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণের একটি প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

▪ সেখান থেকে মিলেনিয়াম পার্কে হাওড়া সেতুর ‘লাইট অ্যান্ড সাউন্ড’ সূচনা করবেন।

▪ওই অনুষ্ঠানের পর মোদি মিলেনিয়াম পার্ক থেকে সড়ক পথে বেলুড় যেতে পারেন।

▪ অথবা ব্যবস্থা হতে পারে জলপথে যাত্রারও। সড়কপথে গেলে ঘিঞ্জি রাস্তা পেরিয়ে বালি ব্রিজ হয়ে যেতে হবে (মিলেনিয়াম পার্কের অনুষ্ঠান শেষ হতে রাত হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত)।

▪বেলুড় থেকে রাতেই রাজভবনে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী।

▪শনিবার রাতে বিশ্রাম নিয়ে রবিবার বেলা ১১টা নাগাদ নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামের একটি অনুষ্ঠানে তাঁর যোগ দেওয়ার কথা।

▪ এরপরে হেলিকপ্টারে চেপে কলকাতা বিমানবন্দরে পৌঁছবেন।

সড়কপথে যাওয়ার থেকে আকাশপথই বেশি নিরাপদ বলে মনে করছেন প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্ব থাকা এসপিজি। স্থলপথে যাত্রা করলে প্রধানমন্ত্রীকে দেখার জন্য যেমন ভিড় হতে পারে, সেরকমই আবার বিক্ষোভ/ প্রতিবাদ মিছিল বা ঘেরাও-এর সম্ভাবনা থাকতে পারে৷ তবে, পরিস্থিতির উপর সব কিছু নির্ভর করবে।

আরও পড়ুনঃ দেশ শান্ত হলে সিএএ নিয়ে আলোচনায় বসবেন বোবদে

এ দিন গুয়াহাটিতে ‘খেলো ইন্ডিয়া ইয়ুথ গেমস ২০২০’-র উদ্বোধন করার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। প্রধানমন্ত্রী অসম সফরে আসতে পারেন, এই খবর পেয়েই তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানোর কথা ঘোষণা করেছিল অল অসম স্টুডেন্টস ইউনিয়ন(আসু)। একইরকম দুশ্চিন্তা কলকাতার ক্ষেত্রেও আঁচ করা হচ্ছে। তাই তিন পথে এত ব্যবস্থা, আয়োজন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here