মহামারি পরিস্থিতিতে ষষ্ঠতম জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য

0
131

নিজস্ব সংবাদদাতা, ওয়েব ডেস্কঃ

করোনা ভাইরাস মহামারি চলাকালীন পর্বে ষষ্ঠ বার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আনলক ওয়ানের শেষ দিনে জাতির উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর এই ভাষণ ঘিরে জল্পনা ছিল তুঙ্গে। একদিকে অতিমারি পরিস্থিতি লকডাউন প্রাকৃতিক বিপর্যয় অপরদিকে লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা।

PM Modi | newsfront.co
ফাইল চিত্র

৩০ জুন বিকেল ৪ টেয় শুরু হওয়া এই ভাষণে কী বললেন প্রধানমন্ত্রী দেখে নিন এক নজরেঃ

  • এই সময় সর্দি-কাশি বেড়ে যায় আপনাদের প্রতি আমার আর্জি, এই সময় সাবধানে থাকুন।
  • করোনা নিয়ন্ত্রণে বিশ্বের অনেক দেশের চেয়ে এগিয়ে ভারত কিন্তু আনলক-১ শুরু হতেই সাবধানতা কমে গিয়েছে। দেশের নাগরিকদের এখনও সতর্ক থাকতে হবে। বিশেষ করে কন্টেনমেন্ট জোনগুলিতে নজর দিতে হবে। যে সব মানুষ নিয়ম পালন করছেন না, তাঁদের থামাতে হবে এবং বোঝাতে হবে।
  • আপনারা খবরে দেখে থাকবেন, একটা দেশের প্রধানমন্ত্রীর জরিমানা হয়েছে, কারণ তিনি মাস্ক ছাড়া জনসমক্ষে বেরিয়েছিলেন।

  • লকডাউনের সময় দেশের কোনও মানুষের ঘরে উনুন জ্বলেনি এমন হয়নি।
  • সরকার থেকে সাধারণ মানুষ সবাই সাহায্য করেছেন। এই তিন মাসে গরিবদের মাথাপিছু ৫ কেজি চাল অথবা গম এবং এক কেজি ডাল দেওয়া হয়েছে। এই সময় আজ একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করতে চলেছি। এই বর্ষার সময়ে কৃষিক্ষেত্রে অনেক বেশি কাজকর্ম হয়, জুলাই থেকে ধীরে ধীরে উৎসবের মরসুম শুরু হয়। এর পর অনেক উৎসব আসছে পরপর। উৎসবের এই সময় প্রয়োজনও বাড়ে, খরচও বাড়ে, এই কারণেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী অন্ন যোজনা দিওয়ালি ও ছট পুজো পর্যন্ত করে দেওয়া হবে। জুলাই, আগস্ট, সেপ্টেম্বর, অক্টোবর, নভেম্বর পর্যন্ত দেওয়া হবে।
  • গরিব পরিবারের সদস্যদের মাথাপিছু ৫ কেজি চাল/গম এবং ১ কেজি ডাল দেওয়া হবে নভেম্বর পর্যন্ত। এতে ৯০ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে সরকারের। আগের গুলো জুড়লে প্রায় দেড় লক্ষ কোটি টাকা খরচ হবে।
নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485