বড়দিনে গির্জায় গির্জায় বন্ধ চা বাগান খোলার প্রার্থনা

0
48

নিজস্ব প্রতিবেদক,আলিপুরদুয়ার, ২৩ ডিসেম্বর :-

মহাসমারহে বড়দিন উদযাপনের চেনা ছবিটা কয়েক বছরে বদলে গেছে অনেকটাই । প্রভু যীশুর জন্মদিনে গির্জায় গির্জায় প্রার্থনা, একে অপরের সঙ্গে ভাব বিনিময় আর প্রীতি ভোজের আনন্দ আজও হয় বটে, কিন্তু বড় দিনকে ঘিরে ডুয়ার্সের বন্ধ চা বাগান গুলিতে অতীতের সেই জৌলুস অনেকটাই ফিকে । কাজ হারিয়ে পরিবার পরিজনদের নিয়ে দিনের পর দিন অনিশ্চিত জীবন যাপনে অভ্যস্ত, নানা দিক থেকে বঞ্চিত দুঃখ দুর্দশায় জর্জরিত চা শ্রমিকরা তাই এবারে ২৫ ডিসেম্বর বড় দিন যীশুর কাছে দ্রুত বাগান খোলার প্রার্থনা জানাবেন । ডুয়ার্সের বন্ধ মধু চা বাগানের শ্রমিক মহল্লা ঘুরে বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে অন্তত এমনটাই জানা গেল ।

আশার আলো এখন গীর্জায়

বছর তিনেক সময় ধরে টানা বন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে মধু চা বাগান । সেই থেকেই কর্মহীন শ্রমিক পরিবার গুলিতে নেমে আসে অভাব অনটন । খাদ্য, পানীয় জল, আলো, চিকিৎসা সহ যাবতীয় পরিসেবা একের পর এক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েন আট থেকে আশি সবাই । বাগান ফের চালু করার ব্যাপারে বারেবারে আবেদন নিবেদন করেও কোনো লাভ হয়নি । মাঝে আর একটা দিন । তার পরেই বড়দিনের আনন্দে মেতে উঠবে সবাই । কিন্তু তাদের বন্ধ চা বাগানে
এবার বড়দিন পালন হবে নিতান্তই ছিমছামভাবে এর-ওর কাছ থেকে চাঁদা তুলে ।
কারন বিগত তিন বছরেও চা বাগানের কাজকর্ম স্বাভাবিক করার জন্য না রাজ্য না কেন্দ্র, কোনো সরকারই সময় করে উঠতে পারেনি বরং বলা ভালো যথাযথ পদক্ষেপ নেয়নি । ফলে চরম অর্থাভাব আষ্টেপৃষ্ঠে বেঁধে রেখেছে তাদের সবাইকেই । আর তাই কার্যত সরকারের প্রতি আস্থা হারিয়ে বেকারত্বের জ্বালা ঘোচাতে মধূ চা বাগানের কর্মহীন চা শ্রমিকেরা এবছর যীশুর কাছে বাগান খোলার প্রার্থনা করবেন ।

নেই কোন জৌলুস

‌ সবার কাছ থেকে চেয়েচিন্তে অর্থ সাহায্য তুলে গত কয়েক দিন ধরেই ডুয়ার্সের বন্ধ মধূ চা বাগানে বড় দিনের প্রস্তুতি চলছে জোরকদমে । মাধুকরীর পয়সায় রং করা হচ্ছে, সাজানো হচ্ছে স্থানীয় গির্জাঘরটিকে । যীশুর জন্মদিন উপলক্ষে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে তোলা হয়েছে গোটা চার্চ চত্বর ও আশেপাশের এলাকা । চা শ্রমিক নির্মল লোহার জানিয়েছেন, মধু চা বাগান তিন বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ হয়ে আছে । যখন বাগান খোলা ছিল তখন মহাসমারোহে বড়দিন উৎসব পালিত হত । কিন্ত এখন বাগান বন্ধ । শ্রমিকদের কাজ নেই । তাই হাতে টাকা পয়সাও নেই । তাই বড়দিনের উৎসব আয়োজনে আগের মত জৌলুসও আর নেই । তিনি জানান ২৪ ডিসেম্বর রাতে আমরা প্রভু যীশুর কাছে মন খুলে একটাই প্রার্থনা করব, যাতে খুব শীঘ্র বাগান খোলার পরিস্থিতি তৈরী হয় । অন্তত তিনি যেন আমাদের হয়ে সরকারের উচ্চপদস্থ আমলা আর নেতা মন্ত্রীদের চেতনা ফিরিয়ে দেন ।


নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485