অস্থায়ী সেতু ভেঙে বিপত্তি, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন বহু মানুষের

0
15

নিজস্ব সংবাদদাতা,কোচবিহারঃ

সুপার সাইক্লোন আমপানের দাপটে তোর্ষা নদীর উপর অস্থায়ী সেতু ভেঙে ঘটল বিপত্তি। এরফলে বহু মানুষের যাওয়া আসার অসুবিধা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় লোকজন।

জানা গেছে, আমপানের দাপট শুধু দক্ষিণবঙ্গে নয়, উত্তরবঙ্গেও তার প্রভাব পড়েছে। গত দুদিন ধরে চলছে ঝড় ও বৃষ্টি। তার জেরে সাধারণ মানুষ অসহায়। তার মাঝেই কোচবিহারের ফাঁসিরঘাটের অস্থায়ী সেতু ভেঙে খান খান হয়েছে। যে ফাঁসিরঘাটকে বলা হয়ে থাকে কোচবিহার শহরের প্রবেশদ্বার। আমপানের ফলে সেতুটি ভেঙে যাওয়ায় কোচবিহার জেলার দক্ষিণ-পশ্চিম অংশ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ এই অস্থায়ী সেতু দিয়ে শহরে প্রবেশ করেন। তা ভেঙে যাওয়ায় খুবই অসুবিধায় পড়েছে সাধারণ মানুষ। এই তোর্ষা নদীতে ফাঁসিরঘাট এলাকায় ওই অস্থায়ী একটি সড়ক সেতুর দাবি দীর্ঘদিন ধরে করা হচ্ছে। তাতে এখনও পর্যন্ত কোন লাভ হয়নি। তাদের দাবি পূরণ না হওয়ায় ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে কোচবিহারবাসীর মধ্যে।

এ বিষয়ে নাগরিক কমিটির সম্পাদক প্রদীপ ঝাঁ বলেন, “জেলার হাজার হাজার মানুষের পাশাপাশি গোসানীমারির বাসিন্দারাও এই ঘাটের উপর যাতায়াত করেন। সাঁকোটি ভেঙে যাওয়ায় আমরা খুবই অসুবিধায় পরেছি। প্রশাসন দ্রুত কোনো ব্যবস্থা নিক।”

প্রসঙ্গত, যে এই সেতুর দাবি রাজ্যস্তরে পৌঁছেছে। বিধানসভায় দাবি তুলে ধরেছেন কোচবিহার উত্তর বিধানসভা নির্বাচন ক্ষেত্রের বিধায়ক।

আরও পড়ুন:৪৮ ঘন্টা পরেও বিধ্বস্ত তিলোত্তমা, নাজেহাল পুরসভা -পুলিশ, পানীয় জল বিদ্যুতের দাবীতে বিক্ষোভ

সেতুর দাবিতে আন্দোলনরত ফাঁসিরঘাট সেতু আন্দোলন কমিটির সভাপতি কাওসার আলম ব্যাপারী বলেন, “এই ঘাট প্রায়ই বন্ধ থাকছে। সেতুর দাবিতে আন্দোলন করছি বৃহত্তর মানবিক স্বার্থে। এখানে সেতু হলে মানুষের জীবন যাত্রায় আসবে নতুন গতি, জেলায় উন্নয়নের গতি হবে আরো তরান্বিত। জনগণের স্বার্থে ও উন্নয়নকে সামনে রেখে এখানে একটি সেতু তৈরী অত্যন্ত জরুরী।”

এ ব্যাপারে কোচবিহার দক্ষিণ বিধানসভার বিধায়ক মিহির গোস্বামীর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। তাই তার কোন রকম বক্তব্য মেলেনি।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485