হাঁটু মুড়ে বসতে অস্বীকার, বাদ পড়লেন কুইন্টন ডি কক

0
63

কবির হোসেন, স্পোর্টস ডেস্কঃ

মঙ্গলবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে দল থেকে বাদ পড়লেন দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কক। দুবাই ইন্টারন্যাশনাল গ্রাউন্ডে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ম্যাচে বাদ পড়লেন। উল্লেখ্য এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রত্যেকটি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা হাঁটু গেড়ে বসে “ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটারস” এই প্রতিবাদ কর্মসূচি গ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু এই কর্মসূচিতে গ্রহণ করতে অস্বীকার করার জন্য মঙ্গলবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে মাঠে নামছেন না কুইন্টন ডি কক তার পরিবর্তে দলে নেওয়া হচ্ছে রেজা হেন্ড্রিক্সকে।

Quinton de Kock
দল থেকে বাদ পড়লেন কুইন্টন ডি কক

এবার টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের প্রত্যেকটি ম্যাচের প্রত্যেকটি দলই “ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটারস” এই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করছেন যদিও তাদের কর্মসূচির প্রতিবাদে ভঙ্গি বিভিন্নরকম। গত রবিবার ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে দেখা গেছে, ভারতীয় দল হাঁটু মুড়ে বসে প্রতিবাদ জানায় এবং পাকিস্তান দল বুকে হাত দিয়ে প্রতিবাদ জানায়।

যদিও দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টস করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক তেম্বা বাভূমা বলেন যে, ব্যক্তিগত কারনের জন্য আজকের ম্যাচে খেলছেন না কুইন্টন ডি কক। কিন্তু খেলা চলাকালীন ক্রিকেট সৌথ আফ্রিকা এক বিবৃতিতে ঘোষণা করেন যে, হাঁটু গেড়ে বসে প্রতিবাদ করতে অস্বীকার করার জন্য এবং তাঁর ব্যক্তিগত মতামতকে সম্মান দেওয়া হয়েছে। তাই মঙ্গলবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ম্যাচে দলে নেওয়া হয়নি। ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা আরো বলেন যে, টিম ম্যানেজমেন্টের রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছে পরবর্তী সিদ্ধান্তের জন্য।

আরও পড়ুনঃ হেসে খেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারালো সাউথ আফ্রিকা

এর আগেও “ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটারস” প্রতিবাদ বিষয়ে তিনি সহমত পোষণ করেন তিনি বলেন এটা আমার ব্যক্তিগত বিষয়, ব্যক্তিগত বিষয়টি নিয়ে কেউ জোর করতে পারে না। ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা জানিয়েছে, তাদের প্রত্যেকটি খেলোয়াড় বর্ণবাদের বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহণ করবে কারণ এই বিষয়টি সবচেয়ে ভাল ভাবে উপলব্ধি করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং এটি তাদের ইতিহাস থেকে নেওয়া। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গত ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হাঁটু গেড়ে বসে প্রতিবাদ করায় সময় বেশিরভাগ খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করেছিল কিন্তু সকলেই ছিলেন না।

আরও পড়ুনঃ মহম্মদ শামিকে ঘিরে কটূক্তির জবাব দিতে গিয়ে দুই দেশেরই হৃদয় জিতলেন পাক ক্রিকেটার মহম্মদ রিজওয়ান

ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা গত বছর নভেম্বর মাস থেকে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ভাষা হিসেবে হাঁটু গেড়ে বসে দুহাত মুঠি করে উপরে অথবা অ্যাটেনশন হয়ে দাঁড়ানোকে প্রতিবাদের ভাষা হিসেবে নেওয়া হয়েছে। গত জুলাই মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে কুইন্টন ডি কক তার হাত দুটো পেছনে মুড়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। তবে “ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটারস” -এর প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বিভিন্ন খেলোয়াড়দের মধ্যে একত্ববাদের অভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে। যার ফলে কর্মসূচি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here