যৌন হেনস্থার অভিযোগে গ্রেফতার নাট্যব্যক্তিত্ব সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায়

0
27

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতাঃ

যৌন হেনস্থার অভিযোগে গ্রেফতার করা হল নাট্যকার সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায়কে। শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁকে বেলেঘাটার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে ফুলবাগান থানার পুলিশ।

sudipta chatterjee | newsfront.co
সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায়। চিত্র সৌজন্যঃ এই সময়

তাঁর বিরুদ্ধে অভিনয় শেখানোর নামে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন দুই ছাত্রী। বেলেঘাটা আর ফুলবাগান থানায় দু’টি পৃথক অভিযোগও দায়ের করা হয়েছিল। এর ভিত্তিতেই এদিন সুদীপ্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শনিবার তাঁকে শিয়ালদহ জেলা আদালতে পেশ করা হবে।

বুধবার ও বৃহস্পতিবার রাতে ফেসবুকে অ্যাঞ্জেলা মন্ডল, রাজেশ্বরী পাল ও শ্রাবস্তী ঘোষ নিজেদের ফেসবুক প্রোফাইলে সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায়ের যৌন হেনস্থার কথা বিবৃত করে একটি পোস্ট দেন। এরপরে ১৮ অক্টোবর রাজেশ্বরী ফুলবাগান থানায় এবং অ্যাঞ্জেলা বেলেঘাটা থানায় সুদীপ্তর নামে এফআইআর দায়ের করেন।

sudipta chatterjee arrested for sexual harassment | newsfront.co
ফেসবুকের একটি কমিউনিটিতে প্রকাশিত রাজেশ্বরী পালের বক্তব্য। চিত্র সৌজন্যঃ ফেসবুক

অ্যাঞ্জেলা জানিয়েছেন ‘ডায়াফ্রাম ব্রিদিং অ্যান্ড সাইকো-ফিজিক্যাল অ্যাক্টিং’ শেখানোর নাম করে সুদীপ্ত তাঁর বাড়িতে ডেকে তাঁকে যৌন হেনস্থা করেছেন।

sudipta chatterjee arrested for sexual harassment | newsfront.co
অ্যাঞ্জেলা মন্ডলের বক্তব্য। চিত্র সৌজন্যঃ ফেসবুক

হেনস্থার সময়ে সুদীপ্ত তাঁকে বারবার সংলাপ উচ্চারণ করতে বলেন যাতে মনে হয় এই পুরো প্রক্রিয়াটি থিয়েটার প্র্যাকটিশের একটা অংশ। পুরো ঘটনাটি ঘটার সময় বাড়িতে একাই ছিলেন সুদীপ্ত।

sudipta chatterjee arrested for sexual harassment | newsfront.co
শ্রাবস্তী ঘোষের বক্তব্য। চিত্র সৌজন্যঃ ফেসবুক

ফেসবুক পোস্টে অভিযোগকারিণী বিস্তৃতভাবে জানিয়েছেন সেই হেনস্থার বৃত্তান্ত। এবং এই পরিপ্রেক্ষিতে তিনি যে গত ১৪ অক্টোবর তাঁর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অফিসিয়াল অভিযোগ করেছেন সেই তথ্যও তিনি জানিয়েছেন।

তাঁর মতে সুদীপ্ত একজন ‘সিরিয়াল সেক্সুয়াল মলেস্টার’। তাঁর এই অভিযোগের সাথে সহমত প্রকাশ করেছেন বাকি দুই ছাত্রী শ্রাবস্তী ও রাজেশ্বরী।

জাতীয় একটি গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে অভিনেতা সোহন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ডায়াফ্রাম ব্রিদিং টেকনিক- এর সাথে যৌন হেনস্থার কোনও সম্পর্কই নেই।

আরও পড়ুনঃ নাতনিকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে অবশেষে গ্রেফতার দাদু

তা থাকলে কোনও খুনীর চরিত্রে অভিনয় করতে গেলে আমাকে কাউকে খুন করতে হবে। কিন্তু এমনটা কাম্য নয়। এই বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে আলোচিত বা সমালোচিত হওয়ার থেকেও আইনি মতে এর কোনও ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

যদিও সুদীপ্ত এই অভিযোগকে খারিজ করে বলেছেন এগুলো সবই- তথ্য বিকৃতি ও সত্য ঘটনার ভুল ব্যখ্যা। তাঁর মতে, তিনি সম্পূর্ণ নির্দোষ।

এটি ছিল সম্পূর্ণ শিক্ষামূলক এবং সম্মতিপূর্ণ একটা প্রসেস এখানে যৌনতা ছিলনা। নাটকের চরিত্রটা যাঁর করার কথা ছিল তার আরও গভীরে যাওয়ার জন্য ট্রেনিং প্রয়োজন ছিল। তাতে নাটকের মঞ্চ উপস্থাপনায় আরও উন্নতি হতো।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485