গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকদের বেতন বৈষম্যের বিষয়টি রাজ্যকে বিবেচনা করতে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

0
28

মোহনা বিশ্বাস, ওয়েব ডেস্কঃ

হাইস্কুলের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিয়ে যে মামলা চলছিল, শনিবার সেই মামলারই রায় ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্ট। বেতন বৈষম্যের বিষয়টি নিয়ে রাজ্যকে বিবেচনা করার নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত। কেন্দ্রীয় সরকারের নিয়ম অনুসারে টিজিটি (ট্রেনড গ্রাজুয়েট টিচার) এবং পিজিটি (পোস্ট গ্রাজুয়েট টিচার) ক্যাটাগরির শিক্ষকদের বেসিক পে’র মধ্যে পার্থক্য থাকার কথা ২৭০০ টাকার পার্থক্য থাকার কথা। কিন্তু বর্তমানে এই রাজ্যে সেই পার্থক্য ১০,০০০ ছুঁতে চলেছে।

Supreme Court

বেতন বৈষম্যের বিষয়টি নিয়ে প্রথমে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে মামলা হয়। এরপর হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছিল বৃহত্তর গ্রাজুয়েট টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন নামে এক শিক্ষক সংগঠন। সরকার পোষিত হাইস্কুলের টিজিটি এবং পিজিটি’র মধ্যে বেতনের বিষয়টি গোটা দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে হয় না, এমনটাই দাবি আবেদনকারী রানাঘাট ওবিআর বৃহত্তর গ্রাজুয়েট টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের।

আরও পড়ুনঃ এনডিএ-র প্রবেশিকা পরীক্ষায় অবিবাহিত মহিলাদের আবেদন করার বিজ্ঞপ্তি জারি UPSC-র

শিক্ষকদের দাবি, যেখানে বেসিক বেতনে পিজিটি’র থেকে টিজিটি’দের ২ হাজার ৭০০ টাকা কম টাকা পাওয়ার কথা। সেখানে পশ্চিমবঙ্গে বাম আমল থেকেই গড়ে ৯ হাজার ২০০ টাকা কম বেসিক বেতন পাচ্ছে টিজিটিরা।

আরও পড়ুনঃ পিএম-কেয়ার্স ফান্ড সরকারি নয়, আদালতে হলফনামা দিয়ে জানাল প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর

গতকাল, শনিবার সুপ্রিম কোর্টে এই মামলাটির শুনানি ছিল। সেখানে রাজ্যের গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকদের বেতন বৈষম্যের অভিযোগ সংক্রান্ত মামলায় রাজ্যকে বিষয়টি বিবেচনা করার নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত। একইসঙ্গে আবেদনকারীরা চাইলে ফের কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন করতে পারেন বলেও জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here