সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসায় বাধ্যতামূলক স্বাস্থ্যসাথী কার্ড, নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

0
50

মোহনা বিশ্বাস, কলকাতাঃ

সরকারি হাসপাতালে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড ছাড়া মিলবে না চিকিৎসা। যাঁদের স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নেই, তাঁদের হাসপাতাল থেকেই কার্ড বানিয়ে দেওয়া হবে। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড না থাকলেও যদি কারোর কাছে সিজিএইচএস, ডব্লুবিএইচএস বা ইএসআই কার্ড থাকে, তাহলেও সরকারি হাসপাতালে মিলবে চিকিৎসা। এমনই নির্দেশিকা জারি করল স্বাস্থ্যদফতর। প্রধানমন্ত্রীর আয়ুষ্মান যোজনার মতোই পশ্চিমবঙ্গে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প চালু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরিবার পিছু পাঁচ লক্ষ টাকার স্বাস্থ্যবিমা রয়েছে এই প্রকল্পে।

Mamata Banerjee on Swasthya sathi
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

২০২০ সালের নভেম্বর মাস থেকে ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির মাধ্যমে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। এইমুহূর্তে রাজ্যের অধিকাংশ মানুষের কাছেই রয়েছে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড। কিন্তু বেসরকারি নার্সিংহোম এবং হাসপাতালগুলিতে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দেখালেও ভর্তি নিচ্ছে না রোগীকে। বিনা চিকিৎসায় ফিরে আসতে হয়। এমনকি স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দেখানোর পরও চিকিৎসা শুরু না করায় রোগীর মৃত্যু পর্যন্ত হয়।

আরও পড়ুনঃ দুয়ারে রেশন নিয়ে ডিলারদের জট কাটল না, বিজ্ঞপ্তি বাতিলের আবেদন খারিজ করল হাইকোর্ট

এখন উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত সোমবার উত্তরবঙ্গেই এক প্রশাসনিক বৈঠক থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘কোনো বেসরকারি নার্সিংহোম এবং হাসপাতাল যদি সরকারি নির্দেশিকা অমান্য করে, তাহলে সেই হাসপাতালের লাইসেন্স পর্যন্ত বাতিল হয়ে যেতে পারে।’ এবার সরকারি হাসপাতালেও চিকিৎসার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড বাধ্যতামূলক বলে নির্দেশিকা জারি করল স্বাস্থ্যদফতর।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here