কার্ত্তিক গুহ,পশ্চিম মেদিনীপুরঃ

the elephant dead and complain about electric department
মৃত হাতি।নিজস্ব চিত্র

রাত্রে খাবার খেতে বেড়িয়ে বেঘোরে প্রাণ গেল দুটি হাতির। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মেদিনীপুর বনবিভাগের অন্তর্গত চাঁদড়া রেঞ্জের নেপুরা গ্রামে।আর একই সঙ্গে দুটি হাতির মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় রীতিমতো চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে বেশ কয়েকদিন ধরেই ৪০ টির একটি হাতির পাল গুড়গুড়িপাল, কনকাবতী, নেপুরা গ্রামে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। মানুষ আতঙ্কে ছিল হাতির তান্ডবে। জমির ফসল, ঘরবাড়ি ভাঙার ঘটনাও ঘটেছে হাতির হানায়।গতকাল রাত্রে জঙ্গল থেকে ঢুকে পড়ে নেপুরা গ্রামে হাতির পাল। তখন দলটিকে জঙ্গলে পাঠিয়ে দিলেও, পরে আবার খাবারের সন্ধানে নেমে যায়। আর সেই সময় একটি ইঁট ভাটার কাছে বিপজ্জনক ভাবে জমির উপর ঝুলে থাকা ইলেকট্রিক তারে দুটি হাতির শক্ খেয়ে মৃত্যু বলে দাবী স্থানীয়দের। তাদের আরো অভিযোগ দিনের পর দিন বৈদ্যুতিক তার ঝুলে থাকলেও উদাসীন ছিল বিদ্যুৎ দপ্তর।এই তারে আরও ভয়াবহ ঘটনা ঘটার আশংকা প্রকাশ করে গ্রামবাসীরা।এই হাতিটি দলের সর্দার ছিল বলে গ্রামবাসীরা জানিয়েছে। পরে হুলাপার্টির লোকজন হাতিগুলিকে জঙ্গলে পাঠিয়ে দেয়। জঙ্গলে ওঠার সময় শালডাঙ্গা গ্রামে তিনটি বাড়ি ভাঙে হাতির পালটি।পরে বনদপ্তরের লোকজন উপস্থিত হয়ে হাতি দুটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। বেঁচে থাকা অবস্থায় হাতিকে ছোঁয়া তো দূরের কথা, কাছে যাওয়ার সাহস নেই। তাই সেই সুযোগে হাতি দেখতে এবং দাঁত, শরীর,কানে হাত বুলাতে দূরদূরান্তের হাজার হাজার মানুষ ভিড় জমিয়েছে এলাকায়।

আরও পড়ুন: প্রধানশিক্ষিকার মেয়র বাবা ‘দেখে নেওয়ার’ হুমকি দিলেন সহশিক্ষকদের

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here