কাঁকসায় ছাত্রীর শ্লীলতাহানির ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা

0
51

সুদীপ পাল,বর্ধমানঃ

the excitement in kasai for girls sex harassment
নিজস্ব চিত্র

পশ্চিম বর্ধমান জেলার কাঁকসা থানার অন্তর্গত মলানদীঘি পঞ্চায়েতের আকন্দারা গ্রামে ছাত্রীর শ্লীলতাহানিকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল৷ ঘটনায় পঞ্চায়েত প্রধানের বাড়ি ও চারচাকা গাড়ি সহ তৃণমূল পার্টি অফিস ভাঙচুর করা হয় বলে জানা যায়।চব্বিশ প্রহরের অনুষ্ঠান চলাকালীন গ্রামের এক যুবক ষষ্ঠ শ্রেনীর এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ ওঠে৷

আরও পড়ুনঃ নাদনঘাটে শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার যুবক

ছাত্রীর পরিবারের তরফে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিশ ১৯ বছরের যুবক মিলন হাজরাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে।

এমন সময় তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য জাহীরুল মিদ্দা দলবল নিয়ে অভিযুক্ত যুবকের বাড়িতে হামলা চালায়।এই হামলায় যুবকের আত্মীয় স্বজন আহত হয়।স্থানীয়রা প্রশ্ন তোলেন, ‘যখন পুরো বিষয়টি পুলিশ দেখছে তখন এই ভাবে দাদাগিরি দেখানোর মানে কি?’ পঞ্চায়েত প্রধান পীযূষ মুখোপাধ্যায়, জাহীরুল মিদ্দার দাদাগিরিকে নিয়মিত মদত দেয় বলে গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেন৷হামলার ঘটনার পর গ্রামবাসীরা পঞ্চায়েত প্রধানের বাড়ি এবং তৃণমূল পার্টি অফিসে গিয়ে হামলা চালায়।

যদিও পঞ্চায়েত প্রধান পীযূষবাবু বলেন, “শ্লীলতাহানীর ঘটনা ধামাচাপা দিতেই বিজেপি পরিকল্পিত ভাবে ভাঙচুর চালিয়েছে।” পশ্চিম বর্ধমান জেলার বিজেপি সভাপতি লক্ষণ ঘড়ুই বলেন, “এই ঘটনায় বিজেপির কেউ যুক্ত নেই।দীর্ঘদিন ধরে রাজ্যের শাসক দল মানুষের উপর অত্যাচার করছিল।এলাকার মানুষ সেই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ দেখিয়েছেন।” ঘটনাস্থলে কাঁকসা ও দুর্গাপুর থানার পুলিশ বাহিনী সহ কমব্যাট ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here