Electrocution: বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত মা-বাবা-দাদা, সাক্ষী থাকল চার বছরের শিশু

0
57

মোহনা বিশ্বাস, ওয়েব ডেস্কঃ

দু’দিন ধরে টানা বৃষ্টির জেরে বাড়ির মধ্যে জল জমেছিল। আর সেই জমা জলে দাঁড়িয়ে ফ্রিজের বিদু্ৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলেন খড়দহের এক দম্পতি এবং তাঁদের এগারো বছরের পুত্র। এই গোটা ঘটনার সাক্ষী থাকল দম্পতির চার বছরের পুত্র সন্তান। মঙ্গলবার এমনই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে খড়দহের পাতলিয়ায়।

Death in Electrocution
সৌজন্যেঃ টিভি ৯ বাংলা

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, খড়দহ থানা এলাকার পাতুলিয়ায় সপরিবারে বসবাস করতেন ওই দম্পতি। প্রবল বৃষ্টির জেরে বাড়ির মধ্যে জমে থাকা জলে দাঁড়িয়েই মঙ্গলবার ফ্রিজের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে গিয়েছিলেন বছর চল্লিশের রাজা দাস। তখনই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন তিনি। স্বামীর এই অবস্থা দেখে তাঁকে বাঁচাতে এগিয়ে যান স্ত্রী পৌলমী দাস। তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন।

এরপর বাবা মাকে বাঁচাতে এগিয়ে যায় তাঁদের এগারো বছরের ছেলে শুভ দাস। তাঁরও বাবা মায়ের মতো একই পরিণতি হয়। এই গোটা ঘটনার ঘটার সময় খাটে বসেছিল দম্পতির ছোট ছেলে। স্বাভাবিক চোখের সামনে এই ঘটনা দেখে কিছু বুঝতে না পারলেও কান্নাকাটি করতে থাকে চার বছরের শিশুটি। তখনই প্রতিবেশীরা এসে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে পড়ে থাকা দম্পতি ও তাঁদের বড় পুত্রকে উদ্ধার করে ব্যারাকপুর বিএন বোস মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেই চিকিৎসকরা তাঁদের মৃত বলে ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুনঃ কোভিশিল্ড-কে মান্যতা দিল না ব্রিটেন, পাল্টা পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি ভারতের

এই মর্মান্তিক ঘটনার পর শোকের ছায়া নেমেছে এলাকায়। শোকস্তব্ধ ওই দম্পতির আত্মীয়স্বজনরাও। এখন চার বছরের শিশুটির কোথায় ঠাঁই হবে সেটাই দেখার। বাবা-মা-দাদার মৃত্যুর পর কার্যত অনাথ হয়ে গিয়েছে ওই চার বছরের শিশুটি।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here