কলকাতায় আরও তিন পুলিশ সংক্রামিত, মোট আক্রান্ত ৩৫, সুস্থ ১৫ জন

0
32

শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতাঃ

হাসপাতালে স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে অবাধ্য জনতাকে যাতে রাস্তায় বেরিয়ে সংক্রামিত না হন, তার জন্য রাস্তায় নামতে হচ্ছে পুলিশকেও। লালবাজার সূত্রের খবর, সেই দায়িত্ব পালন করতে গিয়েই এখনও পর্যন্ত ৩৫ জন পুলিশ কর্মী-আধিকারিক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে ১৫ জন সুস্থ এবং ২০ জন এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন আনন্দপুর থানার সার্জেন্ট, মানিকতলা ট্রাফিক গার্ডের কনস্টেবল এবং পূর্ব যাদবপুরের এক সাব ইনস্পেক্টর।

kolkata police | newsfront.co
প্রতীকী চিত্র। ছবিঃ টুইটার

প্রসঙ্গত, শহরে লকডাউন ঠিকমতো পালন হচ্ছে কিনা তা দেখা থেকে শুরু করে বাজারের ভিড় সামলানো, করোনা হাসপাতালে নিরাপত্তা দেওয়া, এমনকী, দুঃস্থ মানুষদের ত্রাণ দিয়ে সাহায্য করার দায়িত্বও পালন করতে হচ্ছে পুলিশকে। তার মধ্যেই সংক্রমণ বাড়ছে পুলিশের।

আরও পড়ুনঃ কলকাতায় তারকা আবাসনে করোনা আক্রান্ত

আনন্দপুর থানার সার্জেন্টকে বাইপাসের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে । মানিকতলা ট্রাফিক গার্ডের এক কর্মীও নভেল করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। তাঁর বাড়ি লিলুয়ার জগদীশপুরে। এ ছাড়াও পূর্ব যাদবপুর থানার সাব ইনস্পেক্টর করোনা আক্রান্ত হয়েছেন । ওই পুলিশকর্মী নিউটাউনের সাপুরজি আবাসনের বাসিন্দা। এলাকাটি কনটেইনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত। তবে যারা সুস্থ হয়েছেন, তাদের মধ্যে কলকাতা পুলিশের তিন থানার ওসি, সাব-ইন্সপেক্টর ও সার্জেন্টও রয়েছেন । করোনা আক্রান্ত পুলিশকর্মীদের দ্রুত সুস্থ হয়ে কাজে ফেরা মনোবল যোগাচ্ছে অন্য পুলিশকর্মীদের ।

তবে কলকাতা পুলিশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় উদ্বিগ্ন লালবাজার । ইতিমধ্যেই পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা সমস্ত পুলিশকর্মীকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন । ডিভিশনাল ডিসিদের মাধ্যমে প্রত্যেক স্তরের পুলিশকর্মীকে সেই বার্তা পৌঁছে দিতে বলা হয়েছে ।

পুলিশ কমিশনার তার বার্তায় বারবার জানিয়েছেন, প্রত্যেক পুলিশকর্মীকে বারবার সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে । স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে । মুখে মাস্ক, হাতে গ্লাভস পরে কাজ করা বাধ্যতামূলক। প্রয়োজনে পিপিই পরে কাজ করতে হবে। প্রত্যেক থানা ও থানার ব্যারাক নিয়ম করে স্যানিটাইজ করতে হবে । থানা ও অফিসের মেস ও ক্যান্টিন যেন পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকে । প্রত্যেক পুলিশকর্মীকে নিয়ম করে শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করাতে হবে । শরীরে জ্বর, সর্দি কিংবা করোনা সংক্রান্ত কোনও উপসর্গ রয়েছে কিনা সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485