চাপের মুখে পড়ে রাণীনগর হাই মাদ্রাসার চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার

0
79

উমার ফারুক,নিউজ ফ্রন্ট,মালদা:
রাজ্য সরকার অনুমোদিত ও অনুদান প্রাপ্ত ৬১৪টি মাদ্রাসায় দীর্ঘ প্রায় চার বছর ধরে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ আছে।ফলে শিক্ষকের অভাবে মাদ্রাসায় পঠন পাঠন ব্যবস্থা লাটে উঠেছে।মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন ষষ্ঠ এসএলএসটি পরীক্ষা নেয় ২০১৪ সালে,সেই পরীক্ষার ইন্টারভিউ সম্পন্ন হয়েছে গত বছরের ডিসেম্বর মাসের ২৩ তারিখ।এখন চূড়ান্ত মেধা তালিকা প্রকাশ শুধু সময়ের অপেক্ষা।

 

কমিশন আদালতের নির্দেশে ইন্টারভিউ নিয়েছে আবার আদালতের ছাড়পত্র পেলেই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে বলে জানা গেছে।ঠিক এই সন্ধিক্ষণে মালদা জেলার রতুয়া-২ব্লকের রাণীনগর হাই মাদ্রাসা চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে গত ৮ই জানুয়ারি ২০১৮।বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হতেই চাঞ্চল্য ছড়ায় জেলা জুড়ে,কমিশনের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় জটিলতা সৃষ্টি করতেই কি এই বিজ্ঞপ্তি প্রশ্ন ওঠে নানা মহলে।উল্লেখ্য মাদ্রাসায় শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত মামলা সুপ্রিম কোর্টে বিচারাধীন,তাছাড়া ২০০৪ সালে রাজ্য সরকার চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ করা যাবে না বলে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।তাই রাণীনগর হাই মাদ্রাসার চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তির নেপথ্যে গভীর ষড়যন্ত্র আছে বলে ওয়াকিবহাল মহলের ধারনা। কমিশনের ষষ্ঠ এসএলএসটি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ জেলার চাকুরিপ্রার্থীরা রাণীনগর হাই মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ কে জানায় যে তারা মাদ্রাসা শিক্ষার স্বার্থে অবৈতনিক শিক্ষক হিসেবে কাজ করতে আগ্রহী।কিন্তু রাণীনগর হাই মাদ্রাসার পরিচালন সমিতির সম্পাদক কমিশনের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অবৈতনিক শিক্ষক হিসেবে নিতে অস্বীকার করেন বলে চাকুরিপ্রার্থীরা জানান।এই পরিপ্রেক্ষিতে বেঙ্গল মাদ্রাসা এডুকেশন ফোরামের মালদা জেলা কমিটির এক প্রতিনিধি দল সোমবার দুপুরে রাণীনগর হাই মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ এর সঙ্গে দেখা করে বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করতে অনুরোধ করে।মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিজামুদ্দিন মাদ্রাসা পরিচালন সমিতির সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে প্রতিনিধি দলকে জানান।সোমবার বিকেলে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের বিতর্কিত বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করে নেয়।ফলে এদিন মঙ্গলবার চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ বাতিল হয়ে যায়।এই প্রসঙ্গে মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিজামুদ্দিন বলেন-চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি সর্ব সম্মতিক্রমে বাতিল করা হয়েছে।আমরা মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে পূর্ণ সময়ের স্থায়ী শিক্ষক চাই।ডিআই অফিসে শূন্যপদে শিক্ষকের জন্য আবেদন করা হয়েছে বলে তিনি জানান।মাদ্রাসা পরিচালন সমিতির সম্পাদক মাসুদ আলম জানান-চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করা হয়েছে।এই ব্যাপারে ফোরামের রাজ্য সভাপতি ইসরারুল হক মন্ডলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান-মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় জটিলতা সৃষ্টি করতে পরিচালন সমিতির নয়া কৌশল চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ।মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থা কে বাঁচাতে হলে কমিশনের মাধ্যমে স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ করতে হবে।রাজ্যের কোন মাদ্রাসা যাতে চুক্তি ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ করতে না পারে তার জন্য জেলায় জেলায় ডিআই অফিসে ডেপুটেশন জমা দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।আগামী ৩১শে জানুয়ারি মালদা জেলা ডিআই অফিসে ডেপুটেশন জমা দেওয়া হবে বলে ফোরাম সূত্রে জানাগেছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here