পথ দুর্ঘটনায় মৃত হিন্দু যুবকের শেষকৃত্য সম্পন্ন করল প্রতিবেশী মুসলিম যুবকরা

0
14

নিজস্ব সংবাদদাতা, উত্তর ২৪ পরগনাঃ

মুসলিম ভাইয়ের কাঁধে চড়ে হিন্দু ভাইয়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন করার এক অনন্য নজির দেখা গেল বসিরহাটে।
জাতপাত ধর্মীয় ভেদাভেদ ঊর্ধ্বে উঠে প্রায় দু’কিলোমিটার রাস্তা পায়ে হেঁটে শ্মশানে পৌঁছাল হিন্দু যুবকের মরদেহ।

গ্রামের স্থানীয় প্রতিবেশী তৌফিক হোসেন বিশ্বাসের উদ্যোগে কবিরুল মিজানুর মানু রুস্তমের-সহ স্থানীয় শ খানেক যুবকের কাঁধে চেপে বসিরহাট শশ্মানে পৌঁছায় বসিরহাট সংগ্রামপুর এলাকার পশ্চিমপাড়া এলাকার বাসিন্দা পেশায় দিনমজুর অমিত বিশ্বাস। হিন্দু ধর্মের আচার উপাচার মেনে নিজেরাই খরচা দিয়ে শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়।

unique example of funeral
নিজস্ব চিত্র

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার বসিরহাট সংগ্রামপুরের পশ্চিম পাড়ার বাসিন্দা পেশায় দিনমজুর বছর একুশের অমিত বিশ্বাস দুপুর বারোটা নাগাদ সংগ্রামপুরের কাছের পেট্রোল পাম্পে দুজনে মিলে তেল আনতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় পরে বাইক। ওই দুর্ঘটনায় আহত হয়ে অপরজন কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি আছে।

জানা যায়, একটি ম্যাজিক গাড়ির সঙ্গে মুখোমুখি মারুতি গাড়ি সংঘর্ষ হয় সেই সংঘর্ষের মাঝে পরে মোটরবাইকটি। স্থানীয়রা দুজনকে উদ্ধার করে বসিরহাট জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসে বিকেলের দিকে অমিতের মৃত্যু হয়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, প্রায় তেরো বছর আগে অমিতের পিতা নবরঞ্জন বিশ্বাসের মৃত্যু হয়। মা রীতা বিশ্বাস দুই সন্তানকে কোনরকম ভাবে মানুষ করেছেন ।পরিবারের দুই ভাইয়ের মধ্যে একমাত্র রুজি রোজগার করত অমিত। কোনভাবে তাদের দিন গুজরান হত ।এই মৃত্যুতে শোকার্ত সংগ্রামপুর পশ্চিম পাড়া ।গোটা গ্রামটাই সংখ্যালঘু-অধ্যুষিত। মাত্র দু একটি হিন্দু পরিবার ছাড়া আর কেউ নেই সৎকার করার মতো। তাই দাহ করার মত একদিকে যেমন অর্থ প্রয়োজন অন্যদিকে লোকজনের সমস্যা। সমস্যা সমাধানে এগিয়ে এল গ্রামের মুসলিম যুবকরা। শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে কাঠের দোলায় চাপিয়ে পায়ে হেঁটে শ্মশানে পৌঁছিয়ে সম্পূর্ণ নিজেদের অর্থ দিয়ে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করল।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485