জলঙ্গিতে কাটমানির প্রতিবাদে আক্রান্ত উপভোক্তা

0
142

নিজস্ব সংবাদদাতা, মুর্শিদাবাদঃ

মুর্শিদাবাদের জলঙ্গি ব্লকের সাগরপাড়া থানার খয়রামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত রওশাননগর গ্রামের মেম্বার মোজাম্মেল সেখ বাংলা আবাস যোজনার কাটমানি নিয়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

monirul sekh | newsfront.co
মনিরুল সেখ, আহত। নিজস্ব চিত্র

এমনকি এক বয়স্ক মহিলা উপভোক্তার অ্যাকাউন্ট থেকে ২০০০০ টাকা ট্রান্সফার করে নেই বলেও অভিযোগ।

অভিযোগ কারিরা হলেন – মনিরুল সেখ ও রাহিমা বিবি মন্ডল। তারা সকলেই খয়রামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দা।

আরও পড়ুনঃ শিলিগুড়িতে বিয়ের আড়াই মাসের মাথায় মৃত্যু গৃহবধূর, চাঞ্চল্য

অভিযোগ, খয়রামারিগ্রাম পঞ্চায়েতের মেম্বার মোজাম্মেল সেখ, বাবু সেখ, সাইদ ইকবাল(মামুন) – এর নামে। এদের সকলের বাড়ি রওশাননগরে।

panchyat | newsfront.co
সেলিনা বিবি, স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান। নিজস্ব চিত্র

জানাযায়, বাংলা আবাস যোজনার ৬০ হাজার টাকা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঢুকলে মেম্বার প্রথম কিস্তিতে ১২০০০ টাকা আদায় করে মনিরুল সেখের পরিবার থেকে। দ্বিতীয় ধাপে ৫০হাজার টাকা ব্যাংকে ঢুকলে ১০০০০ টাকা চাই ওই মেম্বার। আর তা না দেওয়ায় রাস্তায় ফেলে মারধর করে মেম্বার মোজাম্মেল ও তার সঙ্গীরা বলে অভিযোগ আহত মনিরুল সেখের।

আরও পড়ুনঃ এক যুগলের মৃতদেহ উদ্ধার ময়ূরেশ্বরে

আহত মনিরুল সেখের হাতের একটি আঙ্গুল ফেটে যাওয়ায় সে সাগর পাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসারত।

অপরদিকে রহিমা বিবির স্বামী আব্দুস সাত্তারের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে বাংলা আবাস যোজনা প্রকল্পের প্রথম কিস্তি পাবার সাথে সাথে ব্যাংকে গিয়ে টাকা তোলার নাম করে ২০০০০ টাকা ট্রান্সফার করে নেন তৃণমূল কংগ্রেসের মেম্বার মোজাম্মেল সেখ ও তার সঙ্গী সাইদ ইকবাল (মামুন) বলে অভিযোগ।

সাগরপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আহত মনিরুল ইসলাম ও উপভোক্তাগণ।সাগর পাড়া থানার ওসি বিশ্বজিৎ হালদার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তের আশ্বাস দেন।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে খয়রামারি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান সেলিনা বিবি জানান, “আমার কাছে অভিযোগ এসেছে আমি তদন্ত করে দেখছি বিষয়টা ,অন্যায় করলে সে মেম্বার হোক বা নেতা, কাওকে ছাড়া হবে না।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here