বর্ধমানে সুগন্ধি ধান চাষে রাজ্য সরকারের উদ্যোগ

0
283

নিজস্ব প্রতিবেদক, খন্ডকোশ, বর্ধমান

ভারতবর্ষে ধান উৎপাদনে পশ্চিমবঙ্গ প্রথম। আর পশ্চিমবঙ্গের ধানের গোলা হিসাবে পরিচিত বর্ধমান।গোবিন্দভোগ ধান প্রজাতির পেটেন্ট নিয়ে ভারতবর্ষের সঙ্গে আমেরিকায় দ্বন্দ্ব চলছে। এই প্রজাতির ধানের উৎপত্তি দক্ষিন দামোদর অঞ্চলে।তাই রাজ্য সরকার নতুন করে উদ‍্যোগী হল।

আজ পূর্ব বর্ধমানে সুগন্ধি গোবিন্দভোগ ধানচাষের উপর জোর দিয়ে চাষীভাইদের নিয়ে এক কর্মশালা আয়োজন করে নাবার্ড পরিকল্পিত ফার্মার্স ক্লাব।
পশ্চিমবঙ্গ সরকার দক্ষিন দামোদর এলাকার চাষীদের সুগন্ধি গোবিন্দভোগ ধান চাষের উৎসাহ প্রদান করার জন্য এই বছর একহাজার বিঘা জমির প্রয়োজনীয় ধান বীজ,কীটনাশক প্রদান করল, প্রায় দু হাজার চাষীদের মধ্যে।

আজ ছিল তার একটি কৃষক প্রশিক্ষণ শিবির। খন্ডঘোষ ব্লকের বিভিন্ন গ্রামের চাষীদের নিয়ে শিবির অনুষ্ঠিত হয় গ্রামের প্রান্তিক ও সংখ্যালুঘু সম্প্রদায়ের চাষীদের কাজের উৎসাহ প্রদানের জন্য। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী ও নাবার্ড গোপালপুর ফার্মার্স ক্লাবে চিফ কোঅর্ডিনেটর এমদাদুল হক মন্ডলকে 2015 সালে কৃষক রত্ন পুরষ্কারে ভূষিত করেন। ধান চাষের পাশাপাশি যাতে ডাল শস্য চাষের প্রতি চাষীরা আগ্রহী হন তারজন্য এই বছর দুর্গাপুরে মাটি উৎসব অনুষ্ঠানে একটি মিনি ডাল মিল প্রদান করেন ফার্মার্স ক্লাবকে।
আজকের এই প্রশিক্ষন কেন্দ্রে উপস্হিত ছিলেন জেলা কৃষি অধিকর্তা জগন্নাথ চ্যাটার্জী,সহ অন্যান্য অধির্কতা মন্ডলী।ধান চাষের পাশাপাশি ডাল চাষের উপকারিতা ও মাটির কার্যকারিতা বৃদ্ধির কথা ও ক্লাবের চিফ এমদাদুল হকের কর্ম প্রচেষ্টার প্রশংসাও করেন তিনি।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here