কেরলে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪১ জন গর্ভবতী মহিলার, আতঙ্কে প্রাণ হারিয়েছেন ১৪৯ জন

0
20

মোহনা বিশ্বাস, ওয়েব ডেস্কঃ

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সরে গেলেও দেশে তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার একটা আশঙ্কা রয়েই গিয়েছে। এদিকে করোনা সংক্রমণের হারও ক্রমশ বেড়ে চলেছে। তবে কমেছে মৃত্যুর সংখ্যা। এসবের মাঝে কেরলের চিত্রটা আবার বেশ অন্যরকম। আজ, বুধবার কেরলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বীনা জর্জ বলেন, গত দেড় বছর আগে দক্ষিণ রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস। সেইসময় থেকে এখনও পর্যন্ত কেরলে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৪১ জন গর্ভবতী মহিলার। কোভিড পজিটিভ ব্যক্তিদের মধ্যে শুধুমাত্র আতঙ্কে আত্মহত্যা করেছেন ১৪৯ জন।

Corona virus
প্রতীকী চিত্র

কেরল বিধানসভায় এ বিষয়ে কংগ্রেস বিধায়ক টিজে বিনোদের করা প্রশ্নের জবাবে সেরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বীনা জর্জ বলেন, “কেরলের জেলাগুলি থেকে করোনা সংক্রান্ত যে রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়, সেই রিপোর্টে উল্লিখিত পরিসংখ্যান অনুসারে, রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৪১ জন গর্ভবতী মহিলার মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া করোনা আক্রান্ত ১৪৯ জন রোগী আতঙ্কে আত্মহত্যা করেছেন।”

আরও পড়ুনঃ অনুমোদন পেল না কোভ্যাক্সিন, আরও তথ্য চাইল WHO

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ বা আইসিএমআরের রিপোর্ট অনুযায়ী, দেড় বছর আগে কেরলে করোনার পজিটিভিটির হার ছিল ০.৩৩ শতাংশ, ০.৮৮ শতাংশ। ২০২০ সালের মে, অগাস্ট এবং ডিসেম্বর মাসে এই হার বেড়ে গিয়ে হয়েছিল ১১.৬ শতাংশ। চলতি বছরের মে মাসে কেরলে করোনা পজিটিভিটির হার ছিল ৪৪.৪ শতাংশ।

আরও পড়ুনঃ দেশে ফের বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুও

উল্লেখ্য, রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বীনা জর্জ বলেন, “চলতি বছরের অগাস্ট-সেপ্টেম্বর মাসে রাজ্য যখন সেরো প্রেভালেন্স সমীক্ষা চালায় তখন করোনার পজিটিভিটি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮২.৬১ শতাংশ।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here