অবনী বাড়ি আছো?

0
237

তাপস দাস

পরিবর্তনের বাংলায় শুরুতেই আক্রান্ত হয়েছিলেন কমিউনিস্ট হওয়ার কারণে। শারীরিকভাবে নিগ্রহ করা হয়। এবার তার শিল্পী সত্ত্বা আক্রান্ত। আসাম রাজ্যে ঈশান বাংলার নমামী বরাক উৎসবের জন্য নির্মিত থিম সঙ গেয়েছিলেন। রাজনৈতিক কারণে চিত্রায়ন হতে ছেঁটে ফেলা হয় তাঁকে।
শুভপ্রসাদ নন্দী মজুমদার। গানওয়ালা । কখনও রবীন্দ্র সঙ্গীত, কখনও জনগান। একক উদাত্ত কণ্ঠে অনবদ্য ।আমার সাথে ব্যক্তি জীবনে পরিচয় মিনিট পাঁচেকের। কুশল বিনিময় মাত্র। মুখবইয়ে যেটুকু কথা হয়েছে বলা যেতে পারে ভিন্নমত। প্রতিবারই অত্যন্ত কঠিন ভাবে প্রতি উত্তর দিয়েছেন। অনেকবার সাময়িকভাবে অসন্তুষ্ট হয়েছি। পরে মেনে নিতে বাধ্য হয়েছি তিনিই যথার্থ। আবার কিছু ক্ষেত্রে নিজের অবস্থানে অনড় থেকেছি। এক ঋজু মানুষের সঙ্গলাভ ।

সাম্প্রতিক কালে দেশে মত প্রকাশে কার্ফু। ভিন্নমত হলে তো কথাই নেই রে রে করে তেড়ে আসছে পাগলা ষাঁড়। গৌরি লঙ্কেশ, কুলবার্গী অনেক নাম শুধু মত প্রকাশের জন্য শহীদ হয়েছেন। কামাল হাসান হিন্দুত্ববাদীদের সফট টার্গেট। পদ্মাবতী সিনেমা নিয়েও ফতোয়া জারি হয়েছে। আবর্তটাই এমন যে তুমি হিন্দু তোমার পরিচয় হিন্দুত্ব ছাড়া কিছু নেই।

শুভপ্রসাদ নন্দী মজুমদার বরাক উপত্যকার মানুষ। শিলচর শহরের ভূমিপুত্র। ঘোষিত ভাবে তিনি বামপন্থী,কমিউনিস্ট এবং সি পি আই এম নামক একটি রাজনৈতিক দলের সমর্থক। একষট্টির ভাষা আন্দোলনের পীঠস্থান শিলচর শহর। জানি না তার প্রতিক্রিয়া কী? আমি লেখার চেষ্টা করি । গত পুজোয় আসামের নুরুদ্দিন মিঞা বাঁশের একশ হাতের দুর্গা তৈরি করেছিলেন। সম্প্রীতির মেখলা। আমার সংগ্রহে বেশ কিছু বিহু গান। প্রতিবেশী এই রাজ্যকে অন্যরকম ভাবেই ভেবে এসেছি। ভূপেন হাজারিকার আসাম। লোহিতের আসাম। মাজুলি দ্বীপ কাজিরাঙ্গার আসাম। মাদল আর রমণীর নরম ভালোবাসার অঙ্গন। সেখানে এত দ্বেষ কেন? একজন শিল্পীকে ছেঁটে ফেলা হল শুধু মাত্র তার রাজনৈতিক পরিচয়ে। এবং তা সোচ্চারে ঘোষণা করে। আর এস এস বিরোধী “দেশদ্রোহিতার” তকমা দিয়ে। দেশদ্রোহিতা নিয়ে হিন্দুত্ববাদীদের বস্তা পচা ধ্যান ধারণা নিয়ে কিছু বলার নেই। কারণ তা সময়ের অপচয়। কিন্তু একজন শিল্পীকে সেন্সর করা? যায় কী? আর সেই শিল্পী যদি হন শুভপ্রসাদ নন্দী মজুমদার। যায় না। বিন্দু মাত্র গরিমা ম্লান হয় না। এই অশান্ত সময়ে শুভ প্রসাদ নন্দীমজুমদার গান ধরেছেন। কোন বাসস্ট্যান্ডের পাশে ছোট মঞ্চে। এই অশান্ত সময়ে একজন শিল্পী দুহাত তুলে গাইছেন জীবনের গান। ক্ষমতার দম্ভে যারা অন্ধ তারা জানতেও পারে না কত সহস্র কণ্ঠে ছড়িয়ে পড়ছে মানুষের জন্য মানুষের গান। শুভপ্রসাদ নন্দীমজুমদাররা গাইতে থাকেন। আমরা আবেশে থাকি। রায়গঞ্জের ছন্দম মঞ্চে তিনি গাইছেন ” অবনী বাড়ি আছো?”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here