জামাই-এর পুরুষাঙ্গ কেটে নিল শ্বশুরবাড়ির লোকেরা

0
543

নিজস্ব সংবাদদাতা, উত্তর দিনাজপুরঃ

জামাই-এর পুরুষাঙ্গ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠল শ্বশুর বাড়ির লোকেদের বিরুদ্ধে।ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ সুশীহার গ্রামে।জানা যায় রায়গঞ্জ থানার রায়পুর গ্রামের বাসিন্দা চিরঞ্জিৎ বর্মন,পেশায় কাপড়ের ব্যবসায়ী। সুশীহার গ্রামের মুক্তা বর্মনের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল।অভিযোগ বিয়ের পর থেকে চিরঞ্জিৎবাবু মদ্যপান করে স্ত্রীকে বেদম মারধোর করতেন। গতকাল তার ছোট সম্বন্ধির বিয়েতে পরিবারকে নিয়ে সুশীহারে এসেছিলেন চিরঞ্জিৎ। বিয়েতে আকন্ঠ মদ্যপান করেন চিরঞ্জিৎবাবু।

আক্রান্ত চিরঞ্জিত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। নিজস্ব চিত্র

বিয়ে শেষ হওয়ার পর স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি ফিরে যেতে চাইলে শ্বশুড়বাড়ির লোকেরা আপত্তি করেন। শ্বশুড়বাড়ির লোকজন আপত্তি করলেও চিরঞ্জিৎবাবু মারধোর করে স্ত্রীকে নিয়ে যেতে চাইলে রুখে দাঁড়ায় শ্বশুড়বাড়ি লোকজন।দীর্ঘদিন জমে থাকা ক্ষোভ উগড়ে দেয় শ্বশুড়বাড়ির লোকেরা। চিরঞ্জিৎকে মাটিতে ফেলে মারধোর করা ছাড়াও ব্লেড দিয়ে পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়।আহত জামাইকে রায়গঞ্জ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্ত্তি করা হয়েছে।মদ্যপান করে মেয়েকে মারধোর করার অভিযোগে।পুলিশের কাছে শ্বশুড়বাড়ির পাঁচজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।রক্তাক্ত অবস্থায় চিরঞ্জিৎকে রায়গঞ্জ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করেন এলাকার মানুষ। রায়গঞ্জ থানায় শ্বশুরসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে চিরঞ্জিৎবাবুর পরিবারের লোকেরা। ঘটনার পর থেকে মুক্তা বর্মনের পরিবারের লোকেরা পলাতক।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here