বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে আসন সমঝোতা নিয়ে আশাবাদী সিদ্দিকি

0
48

উজ্জ্বল দত্ত, কলকাতাঃ

কংগ্রেস ও বামেদের সঙ্গে আসন সমঝোতা বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে মিটে যাবে বলে আশাবাদী ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের( আইএসএফ) শীর্ষনেতৃত্ব। যদিও বুধবার আব্বাসউদ্দিনের দলের সঙ্গে বাম কংগ্রেসের দ্বিতীয় দফার বৈঠকেও জট কাটেনি বলে খবর।

abbas siddiqui | newsfront.co
ফাইল চিত্র

কারণ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি। তাই চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্তের কথাও স্পষ্টভাবে জানাতে পারেননি রাজ্যসভার সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য ও বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান।
বুধবার রাতে আসন রফা নিয়ে বৈঠক করেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু এবং সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম ও আইএসএফ-এর তরফে ছিলেন দলের চেয়ারম্যান নওশাদ সিদ্দিকি।

কংগ্রেসের তরফে ছিলেন প্রদীপ ভট্টাচার্য এবং আব্দুল মান্নান।নিজেদের আসন তালিকা দেন নওশাদ সিদ্দিকি। যেখানে অনেক আসনের দাবী করেন তাঁরা বলে খবর। সেই তালিকা মোটে পছন্দ হয় না কংগ্রেসের। বৈঠক শেষে কংগ্রেস বেরিয়ে গেলেও, সিপিএম-এর সঙ্গে আলাদা করে বৈঠক করেন নওশাদ সিদ্দিকি। তিনি স্পষ্ট করে জানান, পঞ্চাশ এর নিচে আসন নিয়ে সমঝোতা নয়।

আরও পড়ুনঃ শ্রম প্রতিমন্ত্রীর উপর বোমাবাজির ঘটনায় প্রশাসনকে কাঠগড়ায় তুললেন ভারতী ঘোষ

কংগ্রেসের একরোখা মনোভাবের জন্যই ক্ষুব্ধ আইএসএফ। তবে বৃহস্পতিবার আইএসএফের আব্বাস সিদ্দিকি ফোনে জানান,’আমরা বাম-কংগ্রেসের কাছে ষাট থেকে সত্তরটা আসন চেয়েছি। কংগ্রেসের জেতা বিধায়ক তৃণমূলে চলে যাওয়া আসন চেয়েছি আমরা। কংগ্রেস বলেছে অধীর চৌধুরীর সঙ্গে কথা বলে জানাবে। আমাদের আশা মিটে যাবে। তবে মিটে না গেলে সেই সব আসনে বন্ধুত্বের লড়াই হবে কিনা তা সময়ই বলবে।’

বুধবার বাম-কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলার পর আইএসএফের সভাপতি নওয়াজ সিদ্দিকি ফোনে জানান,’আমরা বামেদের কাছে ষাট সত্তরটা আসনের একটি তালিকা দিয়েছি। তার মধ্যে কংগ্রেসের কতগুলি আসন আছে। বামেদের সঙ্গে পজেটিভ আলোচনা হয়েছে। আমরা আশাবাদী। কংগ্রেস এই তালিকা নিয়ে গেছে।

বলেছে প্রদেশ সভাপতিকে দেখিয়ে ফোনে ফাইনাল করে দেবে।’ রাজ্য সভার কংগ্রেস সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য বলেছেন,’ওরা আমাদের ভাগের থেকে দশ বারোটা আসন চেয়েছে। দলের সভাপতি ফাইনাল করে দেবে।’
অন্যদিকে, একটি সূত্রে জানা গেছে,কংগ্রেস মালদা, মুর্শিদাবাদ,উত্তর দিনাজপুর, আমডাঙ্গা, উলুবেড়িয়া, পাঁশকুড়ার মতো বেশ কয়েকটি আসন আইএসএফ-এর হাতে দিতে রাজি নয়।

আরও পড়ুনঃ তীর্থক্ষেত্রের অবস্থা দেখে খারাপ লাগছেঃ অমিত শাহ

কিন্তু আইএসএফ জানিয়েছে, ওই সব আসনে সংখ্যালঘু ভোটে কংগ্রেসের চেয়ে তাদেরই প্রভাব বেশি।
বৃহস্পতিবার প্রদীপ ভট্টাচার্য এবং আব্দুল মান্নান অধীরের সঙ্গে আলোচনা করার কথা জানিয়েছেন।প্রসঙ্গত, বাম-কংগ্রেস জোটের আসন রফা নিয়ে দুবার বৈঠক হয়। প্রথম দিন অধীর চৌধুরী ও বিমান বসুর সঙ্গে বৈঠক হয় সেকুলার ফ্রন্টের চেয়ারম্যান নওশাদ সিদ্দিকির। তারপর বুধবার রাতে হয় দ্বিতীয় দফার বৈঠক।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here