বাংলায় ক্ষমতায় এলে সম্ভাব্য মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী নিয়ে হেঁয়ালি অমিতের

0
194

উজ্জ্বল দত্ত, কলকাতাঃ

কলকাতা ছাড়ার আগে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলে গেলেন রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলে সম্ভাব্য মুখ্যমন্ত্রীর নাম নিয়ে ধোঁয়াশা রেখে তিনি বলেন, “এরাজ্যে বিজেপি দু’শোর বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনা।“

Amit Shah | newsfront.co
ছবিঃ বিভাস লোধ

মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বা শুভেন্দু অধিকারীদের নাম সাংবাদিকদের থেকে শুনে তিনি বলেন, “এই তালিকাটা আরও বড় হতে পারে। বিজেপি কখনও আগে মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করে না। উত্তরপ্রদেশে দুই তৃতীয় নিয়ে ক্ষমতায় আসার পর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে যোগীর নাম ঘোষণা করা হয়েছিল। পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রেও তাই হবে। বিধানসভা ভোটে এ রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলে এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করবেন দলের সভাপতি।“

Amit Shah | newsfront.co
সাংবাদিক সম্মেলনে অমিত শাহ। ছবিঃ বিভাস লোধ

দু’দিনের সফরে কলকাতায় এসেছিলেন অমিত শাহ। ঠাসা কর্মসূচি শেষ করে শুক্রবার সন্ধ্যায় কলকাতায় সাংবাদিক বৈঠক করলেন অমিত শাহ। বৈঠকের শুরু থেকেই তৃণমূল সরকারকে একের এক বাক্যবাণে বিদ্ধ করেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ তৃতীয় দফার ভোটগ্রহণ চলছে বিহারে, এক ডজন মন্ত্রীর ভাগ্য নির্ধারণ আজ

Central home minister | newsfront.co
ছবিঃ বিভাস লোধ

তিনি বলেন, “মানুষের কোনও আশাই পূরণ করেনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। মা-মাটি-মানুষের সরকারের স্লোগান এখন বদলে গিয়ে তুষ্টিকরণের স্লোগানে পরিণত হয়েছে। দশ বছর ধরে শুধু তোষণের রাজনীতি হয়েছে।” একুশের ভোটের আগে বাংলায় দলের ভিত মজবুত করতে চাইছেন অমিত শাহ।

শুক্রবার তিনি বলেন, “আপনারা কংগ্রেসকে সুযোগ দিয়েছেন। বামপন্থীদের বারবার সুযোগ দিয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দু’বার সুযোগ দিয়েছেন। আমাদের একবার সুযোগ দিন। পাঁচ বছরে সোনার বাংলা গড়ে দেব। এনসিআরবি’র রিপোর্ট নিয়েও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে আক্রমণ করেন।

আরও পড়ুনঃ বাধা দিলেই বিজেপির বন্ধু দাবি সেলিমের

তিনি বলেন, “সব রাজ্য সেখানকার অপরাধের রিপোর্ট দিচ্ছে। বাংলা থেকে দেওয়া হচ্ছে না। এনসিআরবি রিপোর্ট পাঠানো কেন হচ্ছে না। দু’হাজার আঠারোর পর আর রিপোর্ট পাঠাচ্ছে না রাজ্য। অ্যাসিড আক্রান্তে ঘটনায় বাংলা শীর্ষে। কতজন অভিযুক্তকে সাজা দেওয়া সম্ভব হয়েছে?”

একই সাথে তিনি বলেন, “কেন্দ্রীয় প্রকল্পের রূপায়ণে সবথেকে খারাপ অবস্থায় রয়েছে রাজ্য। আসন্ন নির্বাচনে বিজেপি দু’শোর বেশি আসন পাবে রাজ্যে। তৃণমূল শাসনের অবসান ঘটবে। মানুষের আশীর্বাদ আমাদের সঙ্গে রয়েছে।”

আরও পড়ুনঃ দাম নিয়ন্ত্রণে বাজারে হানা কলকাতা পুলিশ ইবির

পাশাপাশি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদানের জল্পনাও জিইয়ে রাখলেন তিনি। বললেন, “শুধুমাত্র দু’জনের নামই না, তালিকা আরও অনেক বড়।”

তবে সরাসরি এই বিষয়ে কোনও উত্তর করেননি তিনি। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে কাকে প্রোজেক্ট করবে দল তা নিয়েও আজ দলের অবস্থান স্পষ্ট করেন তিনি। বলেন, ” বিজেপি বহু নির্বাচন কোনও মুখ ছাড়াই লড়েছে। বাংলায় বিজেপির-র মুখ শীর্ষ নেতৃত্ব ঠিক করবে।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here