নিখরচায় উচ্চশিক্ষার স্কলারশিপের জন্য ক্রাউড-ফান্ডিং প্ল্যাটফর্ম, মেন্টারশিপ প্রকল্প এএমপি’র উদ্যোগে

0
312

মোহনা বিশ্বাস, ওয়েব ডেস্কঃ

গত ৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবসের দিন একটি বিশেষ ওয়েবিনারের আয়োজন করেছিলেন শেহজাদ মুকাদম এবং হুমেরা কবির। এদিন এই ওয়েবিনার অনুষ্ঠানেই শিক্ষা ও অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে কর্মরত একটি অলাভজনক সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন অফ মুসলিম প্রফেশনালস (এএমপি) ২ টি উল্লেখযোগ্য উদ্যোগ চালু করার কথা ঘোষণা করে।

Students | newsfront.co
প্রতীকী চিত্র

তারমধ্যে একটি উদ্যোগ হল, ভারতের প্রথম নিখরচায় উচ্চশিক্ষার স্কলারশিপের জন্য ক্রাউড-ফান্ডিং প্ল্যাটফর্ম এবং অপরটি হল অভাবী শিক্ষার্থীদের জন্য নিখরচায় গাইডেন্স এবং মেন্টারশিপ প্রকল্প। এই দুটি উদ্যোগই শিক্ষার্থীদের উপকৃত করবে, বিশেষত যাদের উচ্চ শিক্ষার জন্য বা বিশেষজ্ঞ কেরিয়ার তৈরির জন্য আর্থিক সহায়তার প্রয়োজন বা গাইডেন্সের প্রয়োজন ।

এই অনুষ্ঠানে মাওলানা আজাদ জাতীয় উর্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য ডক্টর এম. আসলাম পারভেজ পবিত্র কোরানের শিক্ষার উপর ভিত্তি করে বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, “কোরান আমাদেরকে সর্বশক্তিমানের উপাসনা করার জন্যই শুধু নয়, বরং তাঁর প্রাণীদেরকে সমস্ত উপায়ে সহায়তা করার জন্যও নির্দেশনা দেয়।“

তিনি আরও বলেন, “আমাদের ধর্মীয় অনুশীলন ও ধর্মীয় অনুশীলনের দাস হওয়া উচিত নয়, পবিত্র গ্রন্থের আসল অর্থ বুঝতে হবে এবং একটি সম্প্রদায় হিসাবে এগিয়ে যাওয়ার জন্য আমাদের জীবনে শিক্ষাগুলি বাস্তবায়ন করতে হবে।”

আরও পড়ুনঃ আজ থেকে দেশজুড়ে চলবে অতিরিক্ত ৮০ জোড়া স্পেশাল ট্রেন

এএমপি’ র সভাপতি আমির ইদ্রিসিও এই ওয়েবিনারের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন “এটি এএমপির পক্ষে একটি খুব ঐতিহাসিক দিন, কারণ আমরা অবশেষে স্কলারশিপ ফান্ডিং এবং মেন্টারশিপ গাইডেন্সের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সহায়তা এবং গাইড করার স্বপ্নটি উপলব্ধি করেছি। সরকারি, কর্পোরেট এবং উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মুসলিমদের প্রতিনিধিত্ব খুব কম এবং এই উদ্যোগগুলি এই প্রতিনিধিত্বগুলি বাড়ানোর ইচ্ছা নিয়ে শুরু করা হয়েছে।”

তিনি আরও বলেন যে, “মুসলিম সম্প্রদায়ের একটি বিশাল অংশের আর্থ-সামাজিক করুণ অবস্থার কারণে, মৌলিক চাহিদা শিক্ষার চেয়ে বেশি প্রাধান্য পায়। আমাদের শিক্ষার গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি করতে হবে এবং আমাদের জীবনে এর অগ্রাধিকারটিকে আরো উন্নত করতে হবে।”

আরও পড়ুনঃ বাড়ল লাইফ সার্টিফিকেট জমা দেওয়ার সময়সীমা

সেন্টার ফর ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ, জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ার (জেএমআই) অধ্যাপক ফুরকান কামার বলেন যে, “এই সম্প্রদায়কে কেবল উচ্চশিক্ষা নয়, নিজের একদম বুনিয়াদি শিক্ষার বিষয়েও দৃঢ় বিশ্বাসী হওয়া দরকার। এখন যেটা খুব প্রয়োজন তা হল আমাদের চিন্তা পরিবর্তন করে ‘অনুভূত বাধা’ থেকে মুক্তি পাওয়া এবং যারা কঠোর পরিশ্রম করেন তাদের যাতে স্বীকৃতি এবং পদোন্নতি দেওয়া হয় তা নিশ্চিত করতে আমাদের সর্বদা ‘মেধা’ কে উৎসাহিত করা উচিত।“

ব্রিটিশ যুক্তরাজ্য থেকে এই ওয়েবিনারে বক্তব্য রাখেন হেড অফ ডেলিভারি-১ মিলিয়ন মেন্টার্স জাহিদ হাওলাদার। তিনি বলেন, “যারা সুশিক্ষিত এবং একজন অন্যজনের সঙ্গে ভালভাবে সংযুক্ত তারা ভালো গাইডেন্স পেয়েছে এবং ভালোভাবে উচ্চশিক্ষা পেতে সক্ষম হয়েছে তবে দুর্ভাগ্য আমাদের সম্প্রদায়ের মধ্যে বেশিরভাগ ছাত্রই দিকনির্দেশনা এবং পরামর্শদাতার অভাবে ভোগেন। মেন্টরশিপ এমন একটি উদ্যোগ যা নিশ্চিত ভাবে স্কুল ও কলেজ থেকে ছাত্র ড্রপআউট এবং বিভিন্ন দল-উপদলের মধ্যে ঘৃনাকেও হ্রাস করবে। এটি আমাদের জীবনেও কার্যকর এবং রূপান্তরকারী উদ্যোগ।”

আরও পড়ুনঃ নিয়ম না মানলে বাতিল উড়ানঃ ডিজিসিএ

এডেলগাইভ ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও সিওও মিসেস নাঘমা মোল্লা বলেন, “আজকের সুবিধাবঞ্চিত এবং স্বনির্ভর মানুষের মধ্যে পার্থক্য হ’ল ‘ডিজিটাল বিভাজন’। যারা ডিজিটালি উন্নত ছিলেন তারা মহামারি পরিস্থিতি আরও ভালভাবে নিজেদের কাজকর্ম পরিচালনা করতে পেরেছে এবং এটি আরও বেশি শিক্ষিত হওয়ার পরিণতি।“

তিনি আরও বলেন, “আজকের পোস্ট-কোভিড -১৯ বিশ্বে, যেখানে সরকার ও অর্থনীতি খুব ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে, সেখানে আরও বলা দরকার যে শিক্ষার্থী এবং তাদের পিতামাতাদের আর্থিক সহায়তার পাশাপাশি কেরিয়ারের ক্ষেত্রেও সহায়তা এবং সমর্থন করা উচিত। এএমপির এই উদ্যোগগুলি দীর্ঘমেয়াদে সম্প্রদায়কে সহায়তা করবে।”

উচ্চ শিক্ষার স্কলারশিপের জন্য ফ্রি ক্রাউড ফান্ডিং এএমপির www.indiazakat.com প্ল্যাটফর্মে করা হবে যা দাতাদের এবং সন্ধানকারীদের সংযুক্ত করে ভারতের এক অনন্য ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম। মাত্র ৪ মাস আগে চালু করা হয়েছে, www.indiazakat.com ইতিমধ্যে ৮০ লক্ষেরও বেশি ভারতীয় টাকা জোগাড় করেছে এবং বিশেষত শিক্ষার ক্ষেত্রে দরিদ্র লোকদের সহায়তা করেছে।

এদিকে, ফ্রি মেন্টরশিপ প্রকল্প www.theindiamentors.com হ’ল এএমপির দীর্ঘ স্বপ্নের ফল। ২০১২ সালের প্রথম দিকেই এর জন্য ভাবনা চিন্তা শুরু করা হয়েছিল। তবে, পশ্চিমা দেশগুলির তুলনায় ভারতে ‘মেন্টারশিপ’-এর গুরুত্বের যথেষ্ট অভাব রয়েছে এবং তাই এই প্রকল্পটি শুরু করতে এবং পরিচালনা করতে পারে এমন একটি দল গঠনে অনেক সময় লেগেছে। TheIndiaMentors.com শিক্ষার্থীদের অ্যাকাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি কেরিয়ার বা পেশাদার সমস্যাগুলির জন্যও শিল্প বিশেষজ্ঞ এবং একাডেমিক বিশেষজ্ঞ দ্বারা একেবরে নিখরচায় গাইড করা হবে ।

শিক্ষক দিবসের দিন ভারত এবং সারা বিশ্বের সমস্ত অঞ্চল থেকে দর্শক এই ওয়েবিনারে উপস্থিত ছিলেন। এদিন প্রাক্তন পরিচালক হাফিজ ইকবাল অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের স্বাগত জানান। শুধু তাই নয়, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার পর ওয়েবিনারের পরে ২০২০ সালের জন্য শিক্ষায় চতুর্থ এএমপি জাতীয় পুরষ্কার ঘোষণা করা হয়, যেখানে সারা দেশ থেকে ১০৩ জন শিক্ষককে দেশ গঠনের সহায়তার জন্য সম্মানিত করে এএমপি।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here