বন্ধনের উদ্যোগে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন

0
57

সিমা পুরকাইত,দক্ষিন ২৪ পরগনাঃ

annual sports competition organized by Bandhan 3
নিজস্ব চিত্র

এদিন বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করল বন্ধন নামক একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।বন্ধন শিক্ষা কর্মসূচি নাম দিয়ে আয়োজন করা হয় এই প্রতিযোগিতা।দক্ষিন ২৪ পরগনায় দুটি জোনের মধ্যে লক্ষ্মীকান্তপুর জোনে অংশ গ্রহন করে ২২ টি স্কুলের ৬৬০ জন অবৈতনিক বিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা।উত্তরকুসুম গ্রাম পঞ্চায়েতের জয়েঙ্কুর অবৈতনিক বিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন পঞ্চায়েত প্রধান কুতুব উদ্দিন লস্কর,উপস্থিত ছিলেন ঘোল গ্রামের সদস্য,বন্ধন প্রতিষ্ঠানের ইমানুর গাজি লক্ষিকান্তপুর জোনের কোঅর্ডিনেটর,ছিলেন শিক্ষক শিক্ষিকা সহ পড়ুয়া সঙ্গে অভিভাবকেরা।

annual sports competition organized by Bandhan
ইমানুর গাজী,কো-অর্ডিনেটর। নিজস্ব চিত্র

স্বাধীনতার পর এই জেলায় শিক্ষার মান উন্নয়ন তেমন দেখা না দিলেও রাজ্য সরকারের পালাবদলের পর পরিলক্ষিত হয়েছে একাধিক শিক্ষামূলক কর্মসূচি।প্রাথমিক অবৈতনিক বিদ্যালয় থেকে এসএসকে অথবা অঙ্গনারী কেন্দ্রগুলিতে ঘটছে উন্নয়ন।একটা সময় যেখানে পড়াশুনা নিয়ে উদার চিন্তা ছিলোনা সেখানে এখন বিদ্যালয়ে বসার জায়গা থাকেনা।মিড-ডে মিল থেকে পড়াশুনার পরির্বতন হয়েছে বলে অনেকের দাবি।যাদের অর্থ রয়েছে তারা বেসরকারি ইংরাজি ও বাংলা মাধ্যম স্কুল গুলিতে পঠন পাঠনের ব্যবস্থাজারি রেখেছে তাদের সন্তানদের কিন্তু যাদের নুন আনতে পান্তা ফুরানো অবস্থা তাদের কথা ভেবে শিক্ষামুলক কর্মসুচি নেই ‘বন্ধন’ নামে এই সংগঠন।প্রত্যন্ত গ্রামে কেজি স্কুল থেকে তৃতীয় শ্রেনী পর্যন্ত পঠন পাঠনের ব্যবস্থা নেন বিনা খরচে।

annual sports competition organized by Bandhan 5
দৌড় প্রতিযোগিতা। নিজস্ব চিত্র

তবে অভিনব বিষয় ত্রিশজন ক্ষুদেরা যতদিন পর্যন্ত চতুর্থ শ্রেণীতে উঠবে তারা কখনো নতুন করে ভর্তি হবেনা।ফলে গরীব অসহায় পরিবার বেছে নেন এই স্কুল গুলিতে।লক্ষ্মীকান্তপুরে জোনে রয়েছে ২২টি স্কুল।প্রতিটি স্কুলে নেওয়া হয়েছে ৬ জন করে পড়ুয়া।তাদেরকে নিয়ে চলে বাৎসরিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা।একশো মিটার দৌড় থেকে গুলি-চামচ,আলুদৌড় সবই ছিল এই প্রতিযোগিতায়।ক্ষুদেদের খেলা দেখতে অংশ নেন পড়ুয়া সহ এলাকার বাসিন্দার।চলে সংস্কৃতি অনুষ্ঠান।

আরও পড়ুনঃ চীনা মন্ডপের আদলে বাগদেবীর আরাধনা বড়গাছিয়ায়

annual sports competition organized by Bandhan 2
মোহাঃ কুতুবউদ্দিন লস্কর,প্রধান,উত্তর কুসুমপুর গ্রাম পঞ্চায়েত।নিজস্ব চিত্র

এমন উদ্যোগে সাধুবাদ জানিয়েছে পঞ্চায়েত প্রাধন।সরকারি সব রকমের সাহায্যর হাত বাড়ান তিনি।খেলার শেষে পুরস্কার বিতরন করেন নিজের হাতে।ক্ষুদেদের সাহস বাড়ানোর পাশাপাশি প্রতিযোগি গড়তে এমন উদ্যোগ, দাবি বন্ধন প্রতিষ্ঠানের লক্ষ্মীকান্তপুর জোনের কোওডিনেটর ইমানুজ গাজীর।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485