শিলিগুড়িতে উদ্ধার গৃহবধূর রক্তাক্ত মৃতদেহ,উধাও স্বামীর

0
171

বিশ্বজিৎ সরকার,দার্জিলিংঃ

শনিবার শিলিগুড়ি বারিভাসা এলাকা থেকে এক গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়।মৃতার নাম অনিতা দাস। অপরদিকে এই ঘটনার পর থেকে পলাতক গৃহবধূর স্বামী তপন দাস।

উদ্ধার হওয়া মৃতদেহ।নিজস্ব চিত্র

জানা গিয়েছে যে এদিন স্থানীয়রা ঘরের ভেতরে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পান।এরপর তড়িঘড়ি খবর দেন শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিশের এনজেপি থানায় এবং এই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন এনজেপি থানার পুলিশ গিয়ে মৃতদেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠায়।মৃতার পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে দিনহাটার বাসিন্দা ওই দম্পতি।পারিবারিক অশান্তির জেরে দিনহাটায় শ্বশুরবাড়ি থেকে শিলিগুড়ি চলে আসেন অনিতা দেবী। এবং এনজেপি থানার অন্তর্গত বারিভাসা এলাকায় একটি ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। এরপর আচমকা শুক্রবার দুপুরে তার স্বামী তপন দাস শিলিগুড়িতে চলে আসেন।অনিতা দেবীর উপর শারীরিক অত্যাচার চালাত তপনবাবু বলে অভিযোগ অনিতা দেবীর বোন পূর্ণিমা দেবীর।এরপর শুক্রবার বারিভাসাতে এসে স্ত্রী এর কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন এবং রাতে একসাথে খাওয়া দাওয়া কলেন ওই দম্পতি।এরপর এদিন অনিতা দেবীর বোন পূর্ণিমা দেবী দেখেন  ঘরের ভেতরে রক্তাক্ত দেহ পড়ে রয়েছে। এরপর পুলিশকে খবর দেন। এবং পুলিশ গিয়ে মৃতদেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়ে দেয়। পুলিশ সূত্রেখবর যে মৃতার শরীরে একাধিক জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।তবে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান যে কোন ধারালো কিছু দিয়ে খুন করা হয়েছে গৃহবধূকে। তবে মৃত্যুর আসল কারণ ময়নাতদন্তের পরেই জানা যাবে। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিশের এনজেপি থানার পুলিশ।এর পাশাপাশি মৃতার স্বামীর খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here