নখ রেখে রেকর্ড ছুঁতে চান প্রভাত

0
246

শ্যামল রায়,কালনাঃ

ছোটবেলা থেকেই সখ ছিল হাতের আঙুলে নখ রাখা। সেই আশা গত পাঁচ বছর ধরে পূর্ণ হল। শনিবার কালনা ২ নম্বর ব্লকের সিঙেরকোন বিডিও অফিসে কর্মরত অস্থায়ী কর্মচারী প্রভাত গোস্বামী নিষ্ঠা সহকারে  কাজ করে যান অফিসের। সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক মিলনদেব ঘড়িয়ার সামনে কাজ করতে গিয়ে প্রভাত বাবু জানালেন আমার খুব ইচ্ছে ছিল নখ রাখার। বহুবার চেষ্টা করেছি বারবারই অনেকটা বড় হয়ে দু তিন বছর পর ভেঙে ভেঙে গিয়েছে। গত পাঁচ বছর ধরে সেই নখ এখন ৬ ইঞ্চি থেকে বেড়ে এক ফুটের কাছাকাছি হয়ে দাঁড়িয়েছে।
আমি খুব যত্ন করে এই নখটাকে আরও বাড়াতে চাইছি। প্রশ্ন করা হয়েছিল এত বড় নখ তৈরি হওয়ার  কারণে শারীরিক কাজের কোনো সমস্যা সৃষ্টি হয় কিনা?
তিনি অকপটে স্বীকার করেছেন যে  বড় নখ হলেও কোনরকম সমস্যা তৈরি হয় না।
নখ হচ্ছে আমার শারীরিক একটা অলংকার। আমি ভীষণভাবে যত্নে নখ আগলে রাখি।
কোনরকম আঘাতে যাতে নখ ভেঙে না যায় সব সময় সতর্ক থাকি।

সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক মিলন দেবঘড়িয়ার সঙ্গে প্রভাত।নিজস্ব চিত্র

তবে প্রভাত বাবুর আক্ষেপ দীর্ঘ ত্রিশ বছর যাবৎ এই বিডিও অফিসে অস্থায়ী কর্মী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন নিষ্ঠা সহকারে। সামান্য পারিশ্রমিকের কাজ করে যাচ্ছেন অথচ স্থায়ী ভাবে আজও কর্মরত হতে পারেননি। তাই প্রচন্ড চিন্তা থাকে সব সময়। অল্প উপার্জনের মধ্যে দিয়েই তাকে সংসার চালাতে হয়।তিনি দক্ষিণপন্থী রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে সকলের কাছে পরিচিতি থাকায় তাকে কোনো গুরুত্ব দেয়নি বাম সরকারের লোকজনেরা। অস্থায়ী কর্মী হলেও তাকে ছাঁটাই করবার জন্য বহুবার চেষ্টা করেছেন অনেকে,পারেনি। তবে বর্তমান তৃণমূলের  সরকারের লোকজনেরা আধিকারিকরা তার প্রতি যথেষ্ট গুরুত্ব দেন,তাই সম্মানের সাথে তিনি আজও কাজ করতে পারছেন। তবে তার আঙুলের দীর্ঘায়িত নখ দেখে অনেকেই চমকে ওঠেন এবং প্রশংসা করেন । অনেকেই নখ দেখতে তার কাছে ছুটে আসেন বলেও জানিয়ে দিয়েছেন প্রভাত বাবু । তবে বিডিও মিলন দেবঘড়িয়া জানিয়েছেন যে,প্রভাত বাবুর জীবনের বড় সখ আঙুলের নখ রেখে গ্রিনিচ বুকে নাম তোলা। তার এই স্বপ্ন পূরণ হোক শুভেচ্ছা রইল।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here