বাজপেয়ীর মৃত্যু সংবাদে ফার্নান্ডেজের ছবি প্রকাশ করে সমালোচিত চীনা সংবাদ মাধ্যম

0
73

নিউজফ্রন্ট ওয়েবডেস্কঃ

দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর প্রয়াণ সংবাদে তাঁর ভুল ছবি প্রকাশ করল চিনা সংবাদমাধ্যম শিনহুয়া। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ীর মৃত্যুসংবাদ প্রকাশের সঙ্গে তাঁর ছবির স্থানে জর্জ ফার্নান্ডেজের ছবি প্রকাশ করে শিনহুয়া। প্রসঙ্গত, বাজপেয়ীর মন্ত্রিসভার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ছিলেন জর্জ ফার্নান্ডেজ। আর এই সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন নেটিজেনরা। অনেকেই এই ত্রুটি কে কটাক্ষ করেছেন। কেউ কেউ ‘সস্তার সংবাদ ‘ বলেও সমালোচনা করেছেন। আবার অনেকে জানান, অন্তত ঠিক ছবি ব্যবহার করুন। এরপর নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে তড়িঘড়ি ফার্নান্ডেজের ছবিসহ সংবাদটি সরিয়ে নেওয়া হয় শিনহুয়ার পক্ষ থেকে। এরপর নিজেদের ভুল শুধরে নিয়ে সঠিক ছবি সহ বাজপেয়ীর প্রয়াণ সংবাদ প্রকাশ করে শিনহুয়া সংবাদ মাধ্যম।অবশ্য গতকাল বাজপেয়ী সম্পর্কে প্রথম ভুলটি করেন ত্রিপুরার রাজ্যপাল তথা প্রাক্তন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। তিনি বাজপেয়ীকে নিয়ে বেফাঁস টুইট করেন যে, অটল বিহারী বাজপেয়ী প্রয়াত। বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি এই টুইটটি করেন। যদিও তখনও মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন বাজপেয়ী।এর কিছুক্ষন পরই বাজপেয়ীর সম্পর্কে ভুল খবর টুইট করার জন্য দুঃখপ্রকাশ করেন তথাগত রায়। নিজের ভুলস্বীকার করে ফের একটি টুইট করেন জানান, একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবরের ভিত্তিতে তিনি বিভ্রান্ত হয়ে পড়েছিলেন। পরে জানতে পারেন, বাজপেয়ীর শারীরিক অবস্থা সঙ্কটজনক। এজন্য তিনি দুঃখপ্রকাশ করেন এবং আগের টুইটগুলি ডিলিট করে দেন। অবশ্য এজন্য তথাগত রায়কেও সমালোচিতও হতে হয়। উল্লেখ্য যে, গতকাল বিকালে পাঁচটা পাঁচ মিনিটে দিল্লির এইমসে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী। কার্যত তাঁর মৃত্যুতে শোকোস্তব্ধ গোটা দেশ। কেননা তিনি শুধুমাত্র দেশের প্রাক্তন এনডিএ প্রধানমন্ত্রী ছিলেন না। তিনি ছিলেন প্রথম অকংগ্রেসি স্থায়ী সরকারের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী।আর তাঁর মৃত্যু নিয়ে দুইবার ভুল তথ্য পরিবেশিত হওয়া নিয়ে সমালোচনায় সরব হয়েছেন অনেকেই।

আরও পড়ুন: কাটোয়া বর্ধমান আহমেদপুর রেলপথে রেলের স্বল্পতায় ক্ষোভ

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here