শহরে পুরনো মেজাজে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

0
38

নবনীতা দত্তগুপ্ত, বিনোদন ডেস্কঃ

লকডাউনের বেড়াজাল কাটিয়ে উঠেছি অনেকদিন হল। স্বাভাবিক ছন্দে ফিরেছে অনেককিছুই। শুরু হয়েছে শুটিং, খুলেছে সিনেমা হল, মঞ্চস্থ হচ্ছে নাটক। সেই ধারাবাহিকতা মেনে এবার ‘ড্যাফোডিল ইনকর্পোরেট’ নিবেদন করল বসন্ত আনন্দ।

Artist | newsfront.co

কথায়, সুরে, ছন্দে সম্প্রতি সত্যজিৎ রায় অডিটোরিয়াম (আই.সি.সি.আর )এ মঞ্চস্থ হল এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। শীতের হালকা আমেজ নিয়ে বসন্তের আগমনে এই সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় একক গল্প শোনালেন সতীনাথ মুখোপাধ্যায়।

সৌরভ মুখোপাধ্যায় এর লেখা ‘গুণ্ডা’ শ্রোতার মন ভরায়। আবহে রাজা সেনগুপ্ত। পাশাপাশি গানে,গানে ভরে ওঠে সন্ধ্যা। ঝুমকি সেনের নিবেদনে ছিল একের পর এক চিরস্মরণীয় গান। যেমন- কেন যে কাঁদাও বারে বারে, হায় হায় প্রাণ যায়, তোমার কাছে ফাগুন চেয়েছে, বলো তো আরশি।অরিত্র দাশগুপ্ত’র নিবেদনে ছিল বাজে গো বীণা, ক্ষতি কী না হয় আজ পড়বে, পিন্দারে পলাশের বন- এর মতো জনপ্রিয় সব গান।

আরও পড়ুনঃ নতুন বাংলা গান- ‘বিষাক্ত প্রেম’

সব শেষে ছন্দে মাতালেন মল্লার ঘোষ। বাংলার ঢাক, শঙ্খধ্বনি, বৈদিক মন্ত্রপাঠ সব মিলিয়ে পুজোর আবহ তৈরি করে ফেলেন মল্লার, মল্লিকা এবং তাঁদের সহশিল্পীরা।

আরও পড়ুনঃ বাউল গান ও নাটকের মেলবন্ধনে মনোজ্ঞ সন্ধ্যা

ড্যাফোডিল ইনকর্পোরেট এর পক্ষে রূদ্র সেন বলেন- “বাংলা সংস্কৃতির এক বড় অংশ জুড়ে আছে বিচিত্রানুষ্ঠান। নানা রকমের পারফরম্যান্স নিয়ে সাজানো এই রকমের অনুষ্ঠান শ্রোতা, দর্শকদের দীর্ঘদিন ধরে মনোরঞ্জন করে এসেছে। তেমনই নানা স্বাদের পারফরম্যান্স নিয়ে এবার হাজির ছিল ড্যাফোডিল ইনকর্পোরেট। করোনা মহামারীর কারণে অনেক অনুষ্ঠান হয়নি।কিন্তু আস্তে আস্তে আবার ছন্দে ফিরতে হবে। তাই আবার এই উদ্যোগ।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here