জলোচ্ছ্বাসের আতঙ্কে জেরবার দীঘা শঙ্করপুর

0
309

নিজস্ব সংবাদদাতা, নিউজফ্রন্ট:

নিম্নচাপের অবিরাম বৃষ্টি আর ঝোড়ো হাওয়ার দাপটে উত্তাল সমুদ্রের ঢেউ আছড়ে পড়লো দীঘার শঙ্করপুরের কাছে, বৃহস্পতিবার  রাত্রি থেকে।পূর্ব মেদিনীপুরের রামনগর থানার শঙ্করপুরের জলধা চাঁদপুর এলাকার বাঁধ উপচে গ্রামে জল ঢুকেছে। বৃহস্পতিবার রাত্রি থেকেই সমুদ্রের জল বিপদ সীমার উপর দিয়ে বইতে শুরু করে যে খবর পেয়ে উপদ্রুত এলাকায় পৌঁছায় স্থানীয় পঞ্চায়েত ও ব্লক প্রসাশনের কর্তারা। জরুরী ভিত্তিতে বাঁধ মেরামত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সেচদপ্তর কে। সমুদ্র লাগোয়া এই গ্রামগুলির প্রায় ছয়শো বাসিন্দা অসহায়ের মতো দিন কাটাচ্ছে। মাথার উপর বৃষ্টি আর নীচে সমুদ্রের জলোচ্ছ্বাস। শিশু মহিলা সহ বেশীরভাগ গ্রামবাসীই সমুদ্রের বাঁধের উপর আশ্রয় নিয়েছেন। বোল্ডার ফেলে ভাঙ্গন ঠেকানোর সাময়িক চেষ্টা করা হলেও বাঁধ ভাঙ্গা উত্তাল ঢেউ তা ভাসিয়ে দিয়েছে।

শুক্রবার সকালে এলাকা প্রর্দশনে স্থানীয় প্রসাশনিক কর্তাদের সঙ্গে এসেছিলেন স্থানীয় বিধায়ক অখিল গিরি। স্থানীয় জনগণ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন যে, এই বিপর্যয়ের জন্য সেচ দপ্তর দায়ী। দীর্ঘদিন ধরেই ভাঙ্গনে ভাঙ্গনে বির্পযস্ত কাঁথি মহকুমার উপকূল বাঁধ। তেরো কিমি মতো বাঁধের কাজ সেচ দপ্তর করতে পারলেও অর্থাভাবে দীর্ঘ সমুদ্র বাঁধ অরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে।স্থানীয় বিধায়ক অখিল বাবু জানান, “জোয়ার আসার আগে বাঁধ মেরামত জরুরি।সেচ দপ্তরকে আপাতত বালির বস্তা ফেলে পরিস্থিতি সামাল দিতে বলেছি।যুগ্ম বি ডি ও গণেশ কর্মকার জানান যে, “ব্লকে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। প্রয়োজনে কোস্টগার্ড, কোস্টাল পুলিশ বা বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে ডাকা হবে। “

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here