নিকাশি ব্যবস্থার কারনেই জলমগ্ন নবদ্বীপ

0
51

শ্যামল রায়,নবদ্বীপঃ

কয়েকশো বছরের প্রাচীন শহর নবদ্বীপে আজও জল নিকাশি ব্যবস্থার উন্নতি সেরকম একটা ঘটেনি। অথচ জল নিকাশি ব্যবস্থার উন্নতির জন্য বাম আমলেও সেরকম কোনো পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়নি বলে অভিযোগ আবার সরকার পরিবর্তনের পরেও যেভাবে উল্লেখযোগ্য জল নিকাশি জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত সেটাও হয়নি বলে অভিযোগ পুরবাসী তরফ থেকে করা হয়েছে।
মঙ্গলবার দুপুরে একনাগাড়ে বৃষ্টিতে শহরের বেশ কিছু রাস্তাঘাট জলমগ্ন হয়ে পড়ল। নবদ্বীপ পৌরসভা সামনে রাস্তা থেকে শুরু করে নেতাজি রোড হয়ে রাধাবাজার আলো চামচ এবং ফাঁসিতলা রোড রামসীতা পাড়া রোড জলমগ্ন হয়ে পড়ল। এদিন দেখা গেল নবদ্বীপ বকুলতলা বয়েজ স্কুলের ছাত্ররা রাস্তায় জল ভেঙে ভেঙে বাড়ির দিকে ফিরে যেতে দেখা গেল। অনেকেই টোটো থেকে জলের ভিতরে নামতে চাইছেন না। বিদ্যালয় এর সামনে টোটোতে বসে থাকতে দেখা গেল অভিভাবক অভিভাবিকাদের। নবদ্বীপ বকুলতলা বয়েজ বিদ্যালয় জলমগ্ন হয়ে পড়ে।
এদিন অনেকেই ক্ষোভ উগরে দিয়ে অভিযোগ করলেন যে নবদ্বীপ শহর নিচু অথচ মাটি ফেলে উঁচু করে যদি নালা তৈরি করে জল নিকাশি ব্যবস্থার উন্নতি করা যেতে পারে। শহরের ভারত সেবাশ্রম সংঘের সামনে রাস্তা দিয়ে শুরু করে রাধাবাজার ও আলো চামর পর্যন্ত বৃষ্টি হলেই রাস্তায় হাটু জল জমে যায় ফলে বাসিন্দাদের
চলাফেরা করতে চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়। তবে অনেকেই বলছেন রাধা বাজারে আগে প্রচুর পরিমাণ জল জমতে কিছুটা উঁচু করায় কিছুটা কম পরিমাণ জল দাঁড়ায় তবে এই ব্যবস্থাটা আরও উন্নতির দাবি জানিয়েছেন পুরবাসী।
এছাড়াও শহরের কর্ম মন্দির ক্লাবের মাঠের রাস্তাটিতে ও বৃষ্টিতে জল জমে যায়। তেঘরিপাড়া জলের ট্যাঙ্ক থেকে শুরু করে স্টেশন রোড পর্যন্ত রাস্তায় জলমগ্ন হয়ে পড়ায় প্রবাসীর সাথে যাত্রীসাধারণের ও চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হয় যাতায়াতে।

জল ভেঙে বাড়ি চলছে ছাত্রছাত্রীরা। নিজস্ব চিত্র

এই সমস্যা দীর্ঘদিন ধরেই নবদ্বীপ শহরের মানুষ ভোগ করে আসছে বলে জানা গিয়েছে। তবে জল নিকাশি ব্যবস্থার উন্নতি ঘটলে শহরবাসী উপকৃত হবেন এমনটাই জানা গিয়েছে।
চৈতন্যভূমি নবদ্বীপ শহরে দেশ-বিদেশ থেকে প্রতিদিন হাজারে হাজারে পুণ্যার্থী বেড়াতে আসেন তাই বৃষ্টি হলেই জলমগ্ন হওয়াতে চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হয় যারা মঠ মন্দির দেখতে আসেন পর্যটকরা।
জল নিকাশি ব্যবস্থা আরও উন্নতির দাবিতে সরব হয়েছেন পৌরবাসীর সাথে নবদ্বীপে আসা যাত্রীরাও।
মঙ্গলবার যে পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে শহরে তাকালে মনে হবে জলে ভাসল শহরের রাস্তাঘাট।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485