শ্বশুরের উদ্যোগে বিধবা বৌমার বিয়ে

0
299

সুদীপ পাল, বর্ধমানঃ

নিজের ছেলের বিয়ে দিয়েছিলেন ধুমধাম করে। কিন্তু ভাগ্যের পরিহাসে ছেলের মৃত্যু হয়। ছেলের মৃত্যুর পর পুত্রবধূ আর নাতির ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে দুর্গাপুরের ডিপিএল কলোনির অজয় শাসমল নিজে সম্বন্ধ করে বিয়ে দিলেন পুত্রবধূর।

father-in-law support to marriage of widow daughter-in-law | newsfront.co
ঘুরান ও দেবশ্রী। নিজস্ব চিত্র

জানা গেছে, ডিপিএল কলোনির বণিক মোড়ে মুদির দোকান চালান অজয়বাবু। তাঁর ছোট ছেলে গৌতমের সঙ্গে পূর্ব মেদিনীপুরের দেবশ্রী মাইতির বিয়ে হয়েছিল। ছেলের মৃত্যুর পর থেকে অল্পবয়সী পুত্রবধূ এবং ছোট্ট নাতির কী হবে সে নিয়ে দুশ্চিন্তা হতো তাঁর। অবশেষে তিনি সিদ্ধান্ত নেন পুত্রবধূর আবার বিয়ে দেবেন। কিন্তু সেই বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হননি দেবশ্রী।

আরও পড়ুনঃ রঘুরাম রাজনের মতে ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক মন্দার উৎস কেন্দ্র দ্বারাই পরিচালিত

অজয়বাবু জানান, পুত্রবধূকে প্রথমে রাজি করিয়ে তারপর তার বিয়ের জন্য উপযুক্ত পাত্রের খোঁজ শুরু করেন তিনি। দুর্গাপুরের করঙ্গপাড়ার বাসিন্দা ঘুরান লায়েকের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ হয়। শেষমেষ ঘুরানবাবুর ছেলে সন্তোষের সাথে দেবশ্রীর বিয়ে দেন তিনি।

চার হাত এক হয় পিয়ালা কালীবাড়িতে। অজয়বাবুর এই উদ্যোগে খুশি এলাকাবাসীও। অনেকেই বলছেন, বর্তমান সমাজ বিজ্ঞান-প্রযুক্তিতে এগিয়ে গেলেও অনেক সময় মানুষের মনে আগেকার বদ্ধমূল ধারণা গেঁথে থাকে। অজয়বাবু সে দিক থেকে আধুনিকমনস্ক। দেবশ্রীর মা মিত্রাদেবী বলেন, মেয়ের বিয়ের পর মেয়ের সব দায়িত্ব নিয়েছিলেন বেয়াইমশায়। উনিই মেয়েকে সম্প্রদান করেছেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here