বন‍্যায় সর্বহারাদের প্রতিনিধি ফারজান আলী চলে গেলেন

0
121

উমার ফারুক,নিউজ ফ্রন্ট,হরিশ্চন্দ্রপুর,৩ অক্টোবর:
মালদা জেলায় বন্যার জল নেমে যাওয়ার পর বন্যা কবলিত এলাকায় দেখা দিয়েছে নানা রোগের প্রকোপ।বন্যায় বাড়িঘর শুধুমাত্র ধ্বংস হয়নি মানুষের বহুদিনের স্বপ্ন ও আশা আকাঙ্ক্ষার ও সলিল সমাধি ঘটেছে।সেই সঙ্গে আসছে কিছু মানুষের মৃত্যুর খবরও।গত রবিবার রাতের বেলা মারা যান বছর পঞ্চাশের অসুস্থ ফারজান আলি,সোমবার তাঁর জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।তিনি হরিশ্চন্দ্রপুর ২ব্লকের দৌলতনগর অঞ্চলের শিরিষ বোনা গ্রামের বাসিন্দা।এলাকার বাসিন্দা সমাজসেবী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইসমাইল জানান-ফারজান আলি হৃদ রোগে আক্রান্ত হয় মাস তিনেক আগে মালদা মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হন।চিকিৎসার পর তিনি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন।কিন্তু বন্যার জল ঢুকে যাওয়ায় সব তোলপাড় করে দেয়।তাঁর একমাত্র আশ্রয় স্থল মাটির বাড়ি বন্যার জলে ধসে পড়ে।গৃহহারা ফারজান আলী স্থানীয় মসজিদের ছাদে বহু কষ্টে দিন কাটান।তবে বন্যার জল নেমে যাওয়ার পরে পরিবার নিয়ে চরম খাদ্য সংকটে পড়েন তিনি।সেই সঙ্গে মাথা গোঁজার ঠাঁই তৈরি করার চাপ,এর ফলে আবার অসুস্থ হয়ে পড়েন ফারজান আলী।কয়েকদিন অজ্ঞান হয়ে থাকার পরে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।মৃত ফারজান আলীর স্ত্রী খাইরন নেশা বলেন-আমার স্বামী খুবই পরিশ্রমী, কোনদিন বসে সময় কাটান নি।কারো অনুগ্রহ নিয়ে বেঁচে থাকা পছন্দ করতেন না তাই কায়িক পরিশ্রম করে সংসার চালাতেন।কিন্তু বন্যায় ভিটে মাটি হারিয়ে মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ে সেই যন্ত্রণায় প্রাণ হারালেন।পরিবারের একমাত্র রোজগেরে চলে যাওয়ায় সংসার নিয়ে এখন আমি অথয় জলে।ফারজান আলীর তিন মেয়ে ও দুই ছেলে বর্তমান।প্রসঙ্গত উল্লেখ্য গত মাসের প্রথম সপ্তাহে জলবন্দি অবস্থায় চিকিৎসার অভাবে উক্ত গ্রামের মহম্মদ হেসামুদ্দিন(৬২)নামে এক বৃদ্ধ মারা যান।মৃতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায় সময় মত ডায়ালিসিস করতে না পারার জন্য তিনি মারা যান।এছাড়াও বন্যার সময়এই গ্রামের আমিনা বিবির উপর গভীর রাতে গাছ পড়ে যাওয়ায় সে গুরুতরভাবে জখম হয়ে চিকিৎসাধীন।বর্তমানে তিনি মুমূর্ষু অবস্থায় রয়েছেন।এলাকার বাসিন্দা দের অভিযোগ অসহায় পরিবার গুলির পাশে নির্বাচিত জন প্রতিনিধি দের দাঁড়াতে দেখা যায়নি।তথাকথিত প্রথম সারির মিডিয়ায় এই ঘটনা গুলি স্থান ও পায়না।মানবিক দৃষ্টিকোন থেকে দেখলে এই অসহায় বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানো ও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া সকলের কর্তব্য।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here