শিক্ষারত্ন পুরস্কারের জন্য মনোনীত জলঙ্গীর ফরিদপুর হাইস্কুলের প্রাক্তন সহকারী প্রধান শিক্ষক

0
95

নিজস্ব সংবাদদাতা, মুর্শিদাবাদঃ

মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গি ব্লকের প্রত্যন্ত গ্রাম্য এলাকায় ফরিদপুর হাই স্কুল উচ্চমাধ্যমিক প্রতিষ্ঠিত হয়। ফরিদপুর অঞ্চলের একটি মাত্রই উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সেই সময়। ২০০১ সালে ইংরেজির শিক্ষক হিসাবে জয়েন করেন সোহারাব হোসেন, দীর্ঘ নয় বছর পর সহকারী প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পান। সহকারী প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালনের সঙ্গে সঙ্গেই তিনি হাই মাদ্রাসার পরীক্ষায় বসেন, দুবছর কেটে যাওয়ার পর ২০১৪ সালের ২৬ শে মার্চ প্রধান শিক্ষক হিসাবে যোগ দেন নদীয়া জেলার জানকিনগর হাই মাদ্রাসায়।

Saharab Hossain
শিক্ষারত্ন পুরস্কারের জন্য মনোনীত সোহারাব হোসেন

স্কুলের পরিকাঠামো থেকে শুরু করে শিক্ষার পরিবেশ পরিবর্তন করার আপ্রাণ চেষ্টা করেন। মাদ্রাসায় যে শুধু আরবি শিক্ষাই নয় সেখানে অন্যান্য বিষয় গুরুত্বসহকারে পঠন-পাঠন করানো হয় সে বিষয়ে অভিভাবকদের সচেতন করার চেষ্টা চালিয়ে যান। অক্লান্ত পরিশ্রম এবং স্কুল সহ সকলের সহযোগিতায় এদিন রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে শিক্ষারত্ন পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন ফরিদপুর হাই স্কুলের প্রাক্তন সহকারী প্রধান শিক্ষক ও বর্তমানে নদীয়ার জানকিনগর হাই মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক সোহারাব হোসেন(saharab Hossain) ।

এদিন শিক্ষারত্ন পুরস্কারের জন্য মনোনীত হওয়ার পরে তিনি প্রথমে আল্লাহ শুকরিয়া আদায় করে জানান যে, মৃত পিতা ও মাতার দোয়ার জন্য ও বিশেষ কিছু ব্যক্তিদের সাহায্যর সঙ্গে সঙ্গে ছাত্র ছাত্রীদের দোয়ার ও ভালোবাসার জন্য আজকে এত বড় একটা পুরষ্কার পাওয়ার জন্য মনোনীত হয়েছি।

আরও পড়ুনঃ সালারে বিজ্ঞান মঞ্চের উদ্যোগে রক্তদান শিবির

অন্য দিকে ফরিদপুর হাই স্কুলের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ইকবাল হোসেন জানান যে, আমরা খুবই আনন্দিত ও গর্বিত যে আমাদের সহকর্মী ও প্রাক্তন এই স্কুলের শিক্ষক ছিলেন। তিনি রাজ্য সরকার মনোনীত শিক্ষারত্ন পুরস্কারের জন্য মনোনীত হলেন। আমরা স্কুলের পক্ষ থেকে তার শুভ কামনা করি। ফরিদপুর স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র হিসেবে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা বার্তা পোস্ট করছেন শিক্ষক থেকে শুরু করে ছাত্র ছাত্রীরা।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here