ফের কংগ্রেসে মাথা চাড়া দিল সাংগঠনিক সংস্কারের দাবি, সোনিয়াকে চিঠি আজাদের

0
21

শুভশ্রী মৈত্র, ওয়েব ডেস্কঃ

দলে ‘নেতৃত্বের অভাব ও সাংগঠনিক সমস্যা’ এ নিয়ে প্রায় বছর খানেক আগে অভিযোগ জানিয়ে অন্তর্বর্তী সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি লিখেছিলেন গুলাম নবী আজাদ সহ বেশ কয়েকজন কংগ্রেস নেতা। তাঁরা দাবি তোলেন দলে স্থায়ী সভাপতি নির্বাচনের। দল তা পূরণ তো করেইনি উল্টে যে ২৩ জন প্রবীণ ও নবীন নেতা এই সমস্যা নিয়ে সরব হয়েছিলেন তাঁদের ‘বিদ্রোহী’ বলে চিহ্নিত করে কংগ্রেস। এবার পাঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেসের টাল-মাটাল অবস্থায় এই জি-২৩ বা গ্রুপ-২৩ হিসেবে চিহ্নিত নেতারা ফের সরব হলেন দলের অন্দরের সাংগঠনিক দুর্বলতা নিয়ে।

Sonia Gandhi
গুলাম নবী আজাদ-সোনিয়া গান্ধী-কপিল সিব্বল

এই জি-২৩ নেতাদের অন্যতম, প্রবীণ কংগ্রেস নেতা গুলাম নবী আজাদ দলের স্থায়ী সভাপতি নির্বাচনের দাবিতে ফের চিঠি লিখেছেন সোনিয়া গান্ধীকে। আরেক প্রবীণ কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল কটাক্ষের সুরে বলেন যে তাঁরা জি-২৩ মানে ‘জো হুজুর-২৩’ নন। অতএব প্রশ্ন তুলতেই থাকবেন। পাশাপাশি তাঁর দাবি, মানুষ কেন কংগ্রেসের প্রতি আস্থা হারাচ্ছে তা বিশ্লেষণ করার সাথে সাথে করতে হবে দলের সাংগঠনিক সংস্কার।

আরও পড়ুনঃ প্রধানমন্ত্রী বাঙালিদের পছন্দ করেন না, মোদীকে তোপ দিল্লি ফেরত বাবুলের

এছাড়াও পাঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেস সঙ্কটে অমরিন্দর সিং-কে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরানো কতটা সঠিক সিদ্ধান্ত তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আরেক বিদগ্ধ কংগ্রেস নেতা মনীশ তিওয়ারি। কংগ্রেস সূত্রের খবর এই বিদ্রোহী নেতাদের মূল লক্ষ্য রাহুল গান্ধীর দল পরিচালনার পদ্ধতি। একই সঙ্গে নাম না করে গান্ধী পরিবারকেও বিঁধেছেন তাঁরা। তবে এই বিদ্রোহী নেতাদের অনেকেই জানিয়েছেন তাঁরা দল ছেড়ে যাবেন না কোন ভাবেই।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here