মসজিদে বিজেপির পতাকা, উঠছে রাজনৈতিক শিষ্টাচারের প্রশ্ন

0
128

স্পর্শ ভট্টাচার্য্য, উত্তর ২৪ পরগনাঃ

মসজিদে বিজেপির পতাকা বাঁধাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় উত্তর ২৪ পরগনার নিমতার তেঘরিয়ায়। এই ঘটনার প্রতিবাদে বেশ কিছুক্ষণ কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ে অবরোধ করে উত্তপ্ত জনতা। নিমতা থানা থেকে প্রচুর পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

bjp flag at mosque | newsfront.co
এই পতাকা বাঁধা ঘিরেই উত্তেজনা।নিজস্ব চিত্র

রবিবার বিকেলে তেঘরিয়া এলাকায় বিজেপির সভা ছিল। সেজন্য দুপুরে এলাকায় দলীয় পতাকা বাঁধছিলেন বিজেপি কর্মীরা। স্থানীয় তেঘরিয়া জামে মসজিদে পতাকা বাঁধতে গেলে নিষেধ করেন ইমাম। কিন্তু বিজেপি কর্মীরা সেকথা শোনেননি বলে অভিযোগ। এর পরই স্থানীয়দের সঙ্গে বিবাদ শুরু হয় বিজেপি কর্মীদের। ওঠে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান। এর মধ্যে এসে জোটে তৃণমূল। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে এলাকা ছাড়েন বিজেপি কর্মীরা।

এর পর ঘটনার প্রতিবাদে কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ে অবরোধ করে তৃণমূল। মিনিট ২০ অবরোধ চলার পর ঝেঁপে বৃষ্টি নামলে রণে ভঙ্গ দেন তারাও। পৌঁছয় পুলিশ। নিমতাথানা ও ব্যারাকপুর কমিশনারেটের পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকা থেকে বিজেপির পতাকা খুলে ফেলেন পুলিশ কর্মীরা।

মসজিদের ইমাম মহম্মদ জাহাঙ্গির আলম বলেন, ‘৩৪ বছর সিপিএমের জমানায় কেউ মসজিদে দলীয় পতাকা বাঁধল না। তৃণমূল জমানাতেও এমন ঘটনা ঘটেনি। বিজেপি এসে মসজিদে পতাকা বাঁধতে চেয়েছিল। আমি বাধা দিয়েছি। মসজিদ একটি অরাজনৈতিক জায়গা। এখানে দলের পতাকা বাঁধবে কেন?’

আরও পড়ুনঃ আক্রান্ত মালদহের আইএনটিইউসির সভানেত্রী

তবে ঘটনার পিছনে রাজনীতির যোগ দেখছেন বিজেপির উত্তর দমদম পূর্ব মণ্ডল সভাপতি রমেন দে। তিনি বলেন, ‘রাজনৈতিকভাবে তৃণমূল দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে। তাই পতাকা হোর্ডিং লাগাতে দিচ্ছে না, সভা করতে দিচ্ছে না। রাজ্যে বিজেপির উত্থানে ওরা ভয় পেয়েছে।’

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here