কপিলের সাথে আপের কোনও যোগ নেই, শাহিনবাগ বন্দুকবাজ প্রসঙ্গে হাজির নয়া তথ্য

0
77

নিউজফ্রন্ট, ওয়েবডেস্কঃ

শাহিনবাগ গুলিকাণ্ডে উঠে এল নয়া তথ্য। দিল্লি পুলিশের প্রকাশ করা তথ্য ভুল বলে দাবি করল অভিযুক্ত কপিল গুজ্জরের পরিবারের লোক।

father and brother of Kapil Gujjar | newsfront.co
কপিলের বাবা গাজে সিং ও ভাই। চিত্র সৌজন্যঃ জনতা কা রিপোর্টার

আরও পড়ুনঃ জামিন পেলেন ধর্ষণে অভিযুক্ত প্রাক্তণ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

মঙ্গলবার দিল্লি পুলিশ একটি ছবি প্রকাশ করে দাবি করে কপিল গুজ্জর আপের সদস্য এবং সে ও তার বাবা এক বছর আগে আপে যোগ দেয়। এই তথ্য প্রমাণ করার ভিত্তি হিসাবে পুলিশের কাছে কপিলের ফোন থেকে পাওয়া একটি ছবি ছিল, যেখানে আপ সদস্য সঞ্জয় সিং ও আতিশি মার্লেনের সাথে কপিল ও তার বাবাকে দেখা যায়।

AAP | newsfront.co
কপিলের ফোন থেকে প্রকাশিত ছবি। চিত্র সৌজন্যঃ জাগরন ইন্ডিয়া

আরও পড়ুনঃ ব্রিটিশদের সম্মতিতে গান্ধীর স্বাধীনতা সংগ্রাম ‘সাজানো নাটক’ !- মন্তব্য বিজেপি সাংসদের

ছবিতে শাহিনবাগ গুলিকাণ্ডে অভিযুক্ত যুবককে আপের দলীয় টুপি পরে থাকতেও দেখা যায়। এরপরেই ওই ছবি নিয়ে তোলপাড় হয় দিল্লির রাজনৈতিক মহল। যদিও আপের তরফ থেকে তৎক্ষণাৎ ওই অভিযোগ অস্বীকার করে বলা হয় যে গোটা বিষয়টিই বিজেপির ষড়যন্ত্র।

father of Kapil Gujjar | newsfront.co
কপিলের ফোন থেকে প্রকাশিত ছবি। চিত্র সৌজন্যঃ এনডিটিভি

ছবির সত্যতাসত্য সম্পর্কে খোঁচা দিয়ে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিবাল বলেছেন, কারও সাথে কোনও ব্যক্তির ছবি থাকলেই কি এটা প্রমাণ হয় যে সেই ব্যক্তি কোনও একটি রাজনৈতিক দলের সদস্য? পাশাপাশি কেজরিবাল বলেন, সামনে নির্বাচন তাই বিজেপি এখন শাহিনবাগকে হাতিয়ার করে অনেক কথাই বলবে, অনেক ষড়যন্ত্র করবে।

এইসবের মধ্যে কপিলের বাবার মন্তব্য আরও বিতর্কের সৃষ্টি করে। কপিলের বাবা ও ভাই সাফ জানিয়েছেন আম আদমি পার্টির সাথে তাদের কোনও যোগ নেই। জাতীয় গণমাধ্যমকে দেওয়া একটি বিবৃতিতে কপিলের বাবা গাজে সিং বলেন, ‘আপের সঙ্গে আমার বা আমার পরিবারের কোনও সম্পর্ক নেই। লোকসভা নির্বাচনের সময় (গত বছর) ওঁরা প্রচারে এসেছিলেন। সেই সময়েই ওঁরা আমাদের সবাইকে আপের টুপি পরিয়ে দেন এবং ছবি তোলেন।’

গাজে সিং-এর মন্তব্যে ছবির সত্যতা নিয়ে জমে থাকা ধোঁয়াশা অনেকটাই পরিস্কার হয়ে গিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই কপিল গুজ্জরের পরিবার থেকে পাওয়া এই তথ্যে তোলপাড় হয়েছে দিল্লি পুলিশের অন্দরমহল। নতুন করে প্রশ্নচিহ্ন দেখা দিয়েছে দিল্লির নির্বাচন নিয়ে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here