রাজস্থানে শ্রমিক খুনের অভিযোগ

0
54

আফরাজুলের নৃশংস হত্যাকাণ্ডের পর ফের রাজস্থানে মালদহের শ্রমিককে খুনের অভিযোগ |রাজস্থানের জয়পুরে ওই শ্রমিকের শরীরে অ্যাসিড ঢেলে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠেছে | নিহত ওই শ্রমিকের পরিবারের তরফে অভিযোগ তোলা হয়েছে | জানা গেছে , ওই শ্রমিকের নাম সাকির আলি (৩২)| মালদহের চাঁচল থানার বিষ্টোপুরের পাশে স্বরূপগঞ্জে তাঁর বাড়ি |

নিহত ওই শ্রমিকের পরিবারের সূত্র থেকে জানা যায় , মঙ্গলবার বিকেলে তাঁদের কাছে রাজস্থান থেকে ফোন আসে, সাকির খুন হয়েছেন | কেন সাকিরকে অ্যাসিড দিয়ে পুড়িয়ে খুন করা হল তা তাঁরা জানেন না ৷ ওই পরিবারের তরফে দোষীদের শাস্তির দাবি তোলা হয়েছে | জানা গেছে , ওই শ্রমিকের মৃতদেহ নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছেন পরিবারের এক সদস্য সহ দু’জন ৷
সাকিরের বাবা গিয়াসুদ্দিন বললেন , ” খুনীদের শাস্তি চাই |” শোকে পাথর মা আবেদা বিবি | তিনি বললেন , ” প্রায় ৫ বছর আগে পঞ্চায়েতের ভোট দিতে বাড়ি এসেছিল | তারপর আর এল না |” পরিবার সূত্র থেকে জানা যায় , সাকির প্যান্ডেল তৈরির মিস্ত্রি হিসেবে রাজস্থানের জয়পুরে কাজ করতেন |গ্রামে তাঁদের একটি পানের দোকান রয়েছে |তাঁরা ৪ ভাই, ২ বোন ৷ সাকির জয়পুরের নারিনায় শাস্ত্রীনগর থানার হাজি কলোনি রোডে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন ৷
ওই ঘটনার কথা জানতে পেরে নিহত ওই শ্রমিকের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে তাঁর বাড়িতে বৃহস্পতিবার যান উত্তর মালদহের সাংসদ তথা মালদহ জেলা কংগ্রেসের সভানেত্রী মৌসম নূর ৷ ওই পরিবারকে সমবেদনা জানান তিনি | তিনি বলেন, ” আফরাজুল হত‍্যাকাণ্ডের পর আবার মালদহ জেলার চাঁচল ব্লকের স্বরূপগঞ্জের ডেকোরেটার কর্মী সাকির আলিকে রাজস্থানের একদল লোক অ্যাসিড দিয়ে হত‍্যা করেছে | এই ঘটনার নিন্দা করছি | ধিক্কার জানাচ্ছি |” তিনি আরও বলেন,” ভিন রাজ‍্যে কাজ করতে যাওয়া মালদার শ্রমিকদের সঙ্গে বার বার একই ঘটনা কেন ঘটছে তার প্রকৃত কারণ উদ্ঘাটনের জন‍্য এবং এই নিষ্ঠুরতার ন্যায্য বিচারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন‍্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সি বি আই তদন্তের আর্জি-সহ সাকির আলির পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ায় দাবি জানান হবে ।” তাঁর সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গ যুব কংগ্রেসের সভাপতি তথা মালতীপুরের বিধায়ক আলবেরুনি জুলকারনাইন , হরিশ্চন্দ্রপুরের বিধায়ক মোস্তাক আলম ও চাঁচল – ১ ব্লক কংগ্রেসের নেতৃত্ব গিয়েছিলেন |
সিপিএম নেতৃত্বের পক্ষ থেকেও ওই পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান হয় | সিপিএমের মালদহ জেলার সম্পাদক অম্বর মিত্র ও হবিবপুরের বিধায়ক খগেন মুর্মু , সিটুর মালদহ জেলার সম্পাদক দেবজ্যোতি সিনহা , জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য নিমাই সাহা সহ ডি ওয়াই এফ ও এস এফ আই নেতৃত্ব নিহত শ্রমিকের পরিবারের কাছে ছুটে যান |


সি পি এমের মালদহ জেলা কমিটির সম্পাদক অম্বর মিত্র বলেন , “এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি |” হবিবপুরের বিধায়ক খগেন মুর্মু বলেন , ” অভাবের তাড়নায় এই রাজ্যের শ্রমিকেরা ভিন রাজ্যে কাজের জন্য যাচ্ছে | কিন্তু পরিযায়ী শ্রমিকদের নিরাপত্তা নেই | আগামী অধিবেশনে বিধানসভায় বিষয়টি তুলব | ” শোক সন্তপ্ত ওই পরিবারটিকে সমবেদনা জানান হয়েছে তৃণমূলের পক্ষ থেকেও | তৃণমূল শিক্ষা সেলের মালদহ জেলা কমিটির সম্পাদক ইমতেহাসানুল হক (রুমন) নিহত ওই শ্রমিকের পরিবারের সঙ্গে দেখা করে সহমর্মিতা জানান | তিনি বলেন , ” ওই পরিবারটিকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করা হবে | জানা গেছে , চাঁচলের এস ডি পি ও সজলকান্তি বিশ্বাস ও চাঁচল থানার আই সি সুকুমার মিশ্র এইদিন নিহত শ্রমিকের বাড়িতে যান | দেহ আসার অপেক্ষায় রয়েছে পরিবার সহ গ্রামবাসীরা ||

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here