ভাইপো খুনের দায়ে কাকার যাবজ্জীবন

0
63

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ

নিজের বড় ভাইয়ের ছেলেকে খুনের দায়ে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিল দিনহাটা আদালত।এদিন দিনহাটার এডিশনাল ডিস্ট্রিক্ট এন্ড সেশন জাজ পুস্পল শতপতি এই রায় ঘোষণা করেন। সাজাপ্রাপ্ত দিনহাটার কালমাটি গ্রামের বছর চল্লিশের অতুল বর্মণকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা ও অনাদায়ে ১ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন বিচারক।এদিন ওই মামলার সরকারী আইনজীবী তাহেরুল ইসলাম জানান,২০১৬ সালের ১৯ শে এপ্রিল ঘটনাটি ঘটেছিল দিনহাটার কালমাটি গ্রামে। সেখানে বড় ভাই নরেশ চন্দ্র বর্মনের সাথে ছোট ভাই অতুল চন্দ্র বর্মনের মধ্যে জমির সীমানা নিয়ে মারপিট লাগে।সেই সময় বড় ভাই নরেশ চন্দ্র বর্মনের ছেলে তপন বর্মণ ও সেখানে উপস্থিত ছিল। দুই ভাইয়ের মধ্যে মারপিট দেখে সে তাঁর বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসে। সেই সময় ছোট কাকা অতুল চন্দ্র বর্মণ ভাইপো তপন বর্মণকে বাঁশের লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে।

নিজস্ব চিত্র

ফলে তপন আহত হয়। সেখান থেকে তড়িঘড়ি করে তাকে দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তাঁর শারীরিক আবস্থা অবনতি হওয়াতে কোচবিহার সদর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।২২ শে এপ্রিল তপনের মৃত্যু হয়।এই ঘটনায় তপনের পিতা তার ছোট ভাই অতুল চন্দ্র বর্মনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। মৃতের বাবা নরেশ চন্দ্র বর্মণের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বেশ কয়েক বছর ধরে মামলা চলছিল আদালতে।এই মামলার তদন্তকারী আফিসার ছিলেন পবন কুমার বর্মণ।ওই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মৃতের বাবা নরেশ চন্দ্র বর্মণ ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দেন।১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করে আদালত।এদিন দিনহাটা আদালতের এডিশনাল ডিস্ট্রিক্ট এন্ড সেশন জাজ পুস্পল শতপতি ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় অতুল চন্দ্র বর্মনকে দোষী সাব্যস্ত করে সাজা ঘোষণা করেন।
সরকারী আইনজীবী তাহেরুল ইসলাম জানান, “সর্বসমক্ষে নৃশংস ভাবে মাথা ফাটিয়ে দিয়ে খুন করার ঘটনাটি প্রমাণিত হওয়ায় অতুল চন্দ্র বর্মণকে যথাযোগ্য সাজা দিয়েছে আদালত।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here