চির ঘুমের দেশে শায়িত শহিদ রাজেশ ওরাং

0
107

অরিত্র ঘোষ, বীরভূমঃ

চিনা সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষে শহিদ রাজেশ ওরাংকে শেষ শ্রদ্ধা জানালেন বীরভূমের মানুষ। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাকে বিদায় জানানো হয়। বীর পুত্রের মৃত্যুতে শোক স্তব্ধ গোটা গ্রাম। লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনাদের সাথে সংঘর্ষে শহিদ হয়েছেন ২০ জন জওয়ান ৷ তাঁদের মধ্যে ছিলেন বীরভূমের মহমদবাজারের জওয়ান রাজেশ ওরাং। বছর ২৬ এর রাজেশ ওরাং ২০১৫ সালে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে যোগ দেন ৷

Rajesh Orang | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

তার মৃত্যুর খবর বীরভূমের বাড়িতে পৌঁছাতেই কান্নায় ভেঙে পড়ে তাঁর পরিবার। তিন দিন পর আজ সকালে বীরভূমের বীর সন্তান শহিদ রাজেশ ওরাংয়ের দেহ গ্রামে আসে। সেনাবাহিনী এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষ বিদায় জানানো হয় বীরভূমের বীর সন্তানকে।

শহিদ রাজেশ ওরাংকে শেষবার দেখার জন্য জন্মভিটে বেলগড়িয়া গ্রামে ভিড় করেন প্রচুর মানুষ। এই বেলগড়িয়া গ্রামে ছিল তার কর্মজীবন এবং সেনাবাহিনীতে যোগদান করার প্রস্তুতি পর্বের সূত্রপাত। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই হয়তো সে অন্য আর এক নতুন জীবনে পা রাখত। কিন্তু না, চীন সেনাদের অতর্কিত আক্রমণে প্রাণ দিতে হল বীরভূমির বীর পুত্র রাজেশ ওরাংকে।

আরও পড়ুনঃ বিচারক আক্রান্ত হলে ৮০ শতাংশ অগ্রিমঃ কলকাতা হাইকোর্ট

সকাল থেকে কাতারে কাতারে লোক জমা হতে থাকে তাদের প্রিয় রাজেশকে শেষ শ্রদ্ধা জানাবার জন্য। কেউবা চোখের জলে আবার কেউবা পুষ্পবৃষ্টি করে শ্রদ্ধা জানায় তাদের ঘরের ছেলেকে। আকাশে বাতাসে মুখরিত হতে থাকে ‘ভারত মাতা কি জয় এবং বীর শহীদ অমর রহে ধ্বনি।’

শহিদকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে উপস্থিত ছিলেন অনুব্রত মণ্ডল থেকে শুরু করে কৃষি মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যের মৎস্য মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা ছাড়াও আরো বিশিষ্ট নেতারা।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here