বিজেপির যুব সংগঠনের ডাকা ছাত্র ধর্মঘটের মিশ্র প্রভাব

0
24

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ

বিজেপির যুব সংগঠন ছাত্র ধর্মঘট সফল বলে দাবী করলেও কোচবিহারের প্রায় সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক পঠন পাঠন হতে দেখা গিয়েছে।বুধবার দিনহাটা কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র অলক নিতাই দাস খুনের ঘটনার প্রতিবাদে কোচবিহারে ছাত্র ধর্মঘট পালন করে বিজেপির যুব সংগঠন ভারতীয় যুব মোর্চা।তাদের ওই ধর্মঘটে বেসরকারি কিছু স্কুল বন্ধ থাকলেও সরকারি স্কুল কলেজ গুলো খোলা ছিল।সেখানে পঠন পাঠনও স্বাভাবিক ভাবে হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।তবে এই ধর্মঘট নিয়ে ব্যাপক পুলিশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছিল।যুব মোর্চার কোচবিহার জেলা সভাপতি সমীর রায় বলেন, “এদিন ছাত্র ধর্মঘট সফল হয়েছে।যে সব স্কুল কলেজে খোলা ছিল।তা পুলিশ দিয়ে খোলানো হয়েছে।তবে ছাত্রছাত্রীদের সংখ্যা ছিল নগণ্য। যেভাবে ছাত্র খুনের ঘটনা ঘটেছে,তাতে প্রত্যেক অবিভাবক উদ্বিগ্ন।তারা এই বনধকে সমর্থন করেছেন।”

নিজস্ব চিত্র

অন্যদিকে কোচবিহার উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা নবনীতা সিকদার বলেন,“ স্কুল বনধের জন্য সরকারী কোন নির্দেশিকা নেই।ছাত্রী ও শিক্ষিকা সকলেই এসেছে।পুলিশ রয়েছে।স্বাভাবিক ভাবে অন্যান্য দিনের মত আমরা ক্লাস করছি।”কোচবিহার শহরের জেনকিন্স স্কুলের এক অবিভাবক সজল দত্ত বলেন,“পূজার মুখে গুরুত্বপূর্ণ কিছু ক্লাস থাকে। এমন সময় স্কুল বনধ থাকলে ছাত্রদের অনেক ক্ষতি হবে।তাই ছেলেকে নিয়ে এসেছি। অন্য ছাত্ররাও এসেছে। ক্লাসও হচ্ছে।”

নিজস্ব চিত্র

উল্লেখ্য,৪ অক্টোবর দিনহাটা কলেজের ভিতরে ঢুকে একদল বহিরাগত প্রথম বর্ষের ছাত্র অলক নিতাই দাসকে মারাত্মক ভাবে নিগৃহীত করে। ৬ অক্টোবর কোচবিহারের একটি নার্সিং হোমে তাঁর মৃত্যু হয়। ঘটনার প্রতিবাদে বিজেপির যুব মোর্চা এদিন কোচবিহারে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দেয়। তৃণমূল কংগ্রেস ঐ ছাত্র ধর্মঘটের বিরোধিতা করে রাস্তায় নামার হুমকি দেয়।গতকাল বনধের সমর্থনে মিছিল ও স্কুল গেটে দলীয় পতাকা লাগিয়ে দিতে দেখা গেলেও এদিন যুব মোর্চার কর্মীদের আর দেখা যায় নি।বনধের বিরোধিতা করে রাস্তায় নামতে দেখা যায় নি তৃণমূল কংগ্রেসের কাউকেও।তবে পুলিশ প্রশাসন ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে।

আরও পড়ুনঃ অধ্যাপকের বিরুদ্ধে প্রশ্নপত্র ফাঁস সহ অশ্লীল ইঙ্গিতের অভিযোগে উত্তাল কৃষ্ণনাথ কলেজ

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485