দমদমের রিখিয়া এবার নৈহাটির ‘বড় মা’, সাজালেন মুক্তি

0
28

মোহনা বিশ্বাস, বিনোদন ডেস্কঃ

বিস্ফারিত চোখ, কালো ঘন চুলে প্রতিবছর সেজে ওঠেন নৈহাটির ‘বড় মা’। শিল্পি অতি যত্নে মায়ের চক্ষুদান করেন। মা কালীর এই রূপের ছটায় আলোকিত হয় গোটা নৈহাটি। মাটির প্রতিমার এই রূপ এবার ফুটিয়ে তোলা হল মানব শরীরে। পেশায় রূপটান শিল্পী সোদপুরের মুক্তি রায়, তাঁর নিপুণ হাতে মূর্তির আদল ফুটিয়ে তুলেছেন মানব শরীরে। নিজেকে ‘বড়মা’ গড়ে তুলতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় দিয়েছেন মডেল রিখিয়া রায়চৌধুরী। দমদমের এই কন্যাকে ‘বড় মা’ ভেবে অনেকে প্রণামও করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই ছবিটি আসলে একটি ফোটোশ্যুটের কাজ।

Model Rikhia as Naihati Boro Maa
বাঁ দিকে নৈহাটির ‘বড় মা’ -এর মূর্তি। ডান দিকে বড় মা রূপে মডেল রিখিয়া রায়চৌধুরী

উত্তর চব্বিশ পরগনার নৈহাটি অরবিন্দ রোডে প্রতিবছর আয়োজিত হয় জনপ্রিয় ‘বড় মা’ কালীর পুজো। প্রায় ১০০ বছর ধরে এই পুজো হয়ে আসছে। প্রথমে এটি ছিল বাড়ির পুজো। তারপর সর্বজনীন পুজোয় পরিণত হয় এই পুজো। নৈহাটির ২২ ফুট অর্থাৎ ১৪ হাত দীর্ঘ এই প্রতিমার জনপ্রিয়তা ছড়িয়ে রয়েছে দেশ-বিদেশে। এই জাগ্রত প্রতিমার আদলেই রিখিয়াকে সাজিয়েছেন সোদপুরের মুক্তি। তাঁর কথায়, ‘‘প্রায় দশ বছর আগে আমি প্রথম বার নৈহাটির বড় মায়ের পুজো দেখতে গিয়েছিলাম। সেখানে গিয়ে বড় মায়ের ওই বিশাল মূর্তি আর তার ভাব দেখে আমার গায়ে কাঁটা দিয়েছিল। জল এসেছিল চোখে। ইচ্ছা ছিল মায়ের রূপ ফুটিয়ে তোলার। প্রথমে একটু ভয় করলেও শেষ পর্যন্ত সেই ইচ্ছাটা পূরণ করেই ফেললাম।’’

আরও পড়ুনঃ দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার পেলেন রজনীকান্ত

অন্যদিকে, ‘বড় মা’ রূপে সেজে উঠেছেন মডেল রিখিয়া রায়চৌধুরী। নিজের এই রূপসজ্জা দেখে রিখিয়া বলেন, “আমরা এক অসাধ্য সাধন করে ফেলেছেন। এই ছবি যে ভাইরাল হবে তা আমরা আগে থেকেই জানতাম। কিন্তু ছবিটা যে এত বেশি মানুষের পছন্দ হবে, এটা ভাবিনি। সেদিন আমি প্রায় ৪-৫ ঘণ্টা চোখ বুজে ছিলাম ‘বড় মা’-র চোখ ফুটিয়ে তোলার জন্য।”

আরও পড়ুনঃ গোড়ালিতে চোট নিয়েই ইভেন্টে হাজির ঋতাভরী

জানা গিয়েছে, ‘বড় মা’-র আদল ফুটিয়ে তুলতে প্রায় ৯ ঘণ্টা সময় লেগেছে। ছ’জনের প্রচেষ্টায় মডেল রিখিয়া হয়ে উঠেছেন ‘বড় মা’। এদিন রিখিয়ার কেশসজ্জা করেছেন শিল্পী স্বরূপ দাশ। চিত্রগ্রাহক ছিলেন অমিত চক্রবর্তী। তাঁরাও সেদিন টানা কাজ করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত দেড় হাজারের বেশি মানুষ এই ছবিটিকে পছন্দ করেছেন। কমেন্ট বাক্সে অসংখ্য মানুষের প্রশংসা কুড়াচ্ছে এই ছবি।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here